Techno Header Top and Before feature image

ট্রাম্পের ভিডিও সরালো ফেইসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও টুইটার

ছবি : ইন্টারনেট

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরাজয় মানতে রাজি নন। তার সমর্থকরাও তাকে বিদায় জানাতে নারাজ।

তাই বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনের (ইউএস ক্যাপিটল) সামনে জড়ো হন ট্রাম্প সমর্থকরা। কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনে জো বাইডেনের জয়ের অনুমোদনের প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান। পার্লামেন্ট ভবনের সামনে দেওয়া ব্যারিকেড ভেঙে পুলিশের সঙ্গে সংর্ঘষেও জড়ান তারা। কেউ কেউ ভবন ঢুকেও ভাংচুর করেন।

এ বিষয়ে ট্রাম্প তার সমর্থকদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। সেখানে তিনি বলেন, বাড়ি ফিরে যান। আমি জানি, আপনারা কষ্ট পেয়েছেন। এই নির্বাচনে চুরি করা হয়েছে। সবাই জানে। তবে এখন আপনারা বাড়ি যান। আমাদেরকে শান্তি বজায় রাখতে হবে।

এই বক্তব্য সম্বলিত ভিডিও ডিলিট করে দিয়েছে টুইটার, ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রাম। তাদের ভাষ্য, ট্রাম্পের বক্তব্য সহিংসতাকে উস্কে দেবে।

এরই জের ধরে ১২ ঘণ্টার জন্য তার অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড এবং ৩টি টুইট ডিলিট করে দেয় টুইটার। কারণ হিসেবে তারা জানায়, টুইটগুলোতে একই কথা লেখা এবং সেগুলো টুইটারের নীতিমালার বিরুদ্ধ।

ফেইসবুকও ২৪ ঘণ্টার জন্য ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেয়। ফেইসবুকের ইন্টিগ্রিটি বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট গাই রোসেন বলেন, এখন জরুরি অবস্থা চলছে। তাই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভিডিও সরানোসহ অন্যান্য পদক্ষেপ নিয়েছি।

এছাড়াও, ইন্সটাগ্রামের সিইও অ্যাডাম মোসেরি টুইটারে জানান, ট্রাম্পের জন্য আগামী ২৪ ঘণ্টা ফটোশেয়ারিং অ্যাপের দরজাও বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, আগামী ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করবেন জো বাইডেন।

ইন্টারনেট অবলম্বনে এজেড/ জানুয়ারি ০৭/২০২০/১০.০৫

আরও পড়ুন –

ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট পাচ্ছেন বাইডেন, ফলোয়ার গায়েব!

ট্রাম্পের পোস্টে টুইটারের ফ্ল্যাগ

ট্রাম্প বিরোধী ভিডিও মুছে দিলো টিকটক

প্রেস সচিবের অ্যাকাউন্ট বন্ধে টুইটারকে ট্রাম্পের হুমকি

*

*

আরও পড়ুন