vivo Y16 Project

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে চলবে মঙ্গলের অর্থব্যবস্থা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মঙ্গলগ্রহের অর্থব্যবস্থা ক্রিপ্টোকারেন্সির উপর নির্ভর করে চলবে বলে মন্তব্য করেছেন স্পেসএক্সের সিইও ইলন মাস্ক।

গত ২৪ ডিসেম্বর এআই রিসার্চার লেক্স ফ্রাইডম্যানের ‘মার্সকয়েন’ লিখে টুইট করলে ইলন মাস্ক তাতে ‘ইয়েস’ লিখে কমেন্ট করেন। মার্সকয়েন প্রোজেক্ট শুরু হয় ২০১৪ সালে। এর ৩ বছর পর ক্রিপ্টোকারেন্সিটি চালু হলেও তেমন জনপ্রিয়তা পায়নি।

তাই মঙ্গলে ভার্চুয়াল অর্থ লেনদেনের মাধ্যম হিসেবে ক্রিপ্টোকারেন্সি ডজকয়েন কয়েক ধাপ এগিয়ে আছে। গত সপ্তাহে ইলন মাস্ক টুইটারের বায়োতে ডজকয়েনের সাবেক সিইও লিখলে এর দাম বাড়ে এক তৃতীয়াংশের বেশি।

Techshohor Youtube

গত কয়েক বছর ধরেই মঙ্গলে বসতি স্থাপনের জন্য অত্যাধুনিক স্টারশিপ রকেট নির্মাণ করছে ইলন মাস্কের কোম্পানি স্পেসএক্স। মাস্কের ভাষ্য, গ্লাস দিয়ে ঘেরা অবকাঠামোর মধ্যেই জীবন ধারণের কৌশল রপ্ত করবে মানুষ। আগামী ২০২৪ সালের মধ্যেই মঙ্গলগ্রহে প্রথম মানুষ পাঠাতে চান তিনি।

ইন্ডিপেন্ডেন্ট অবলম্বনে এজেড/ ডিসেম্বর ২৯/২০২০/১৭০২

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project