Techno Header Top and Before feature image

অনলাইনে হয়রানির শিকার ১৫ থেকে ২৫ বছরের নারী

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নারীর প্রতি সহিংসতা কিংবা সাইবার বুলিং রোধে সচেতনতা তৈরী করতে ২৫ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে ১৬ দিনের কর্মসূচী।

 আন্তর্জাতিকভাবে আয়োজিত এ আয়োজনের এবারের প্রতিপাদ্য করা হয়েছে ‘বিশ্বকে কমলা করুন: তহবিল, প্রতিক্রিয়া, প্রতিরোধ, সংগ্রহ!’

এই ১৬ দিনকে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ দিবস পক্ষ হিসেবে পালন করে আসছে ‘টেইক ব্যাক দ্য টেক’। ২০১৪ সাল থেকে বাংলাদেশে নারী সহিংসতা বিশেষ করে অনলাইনে নারী সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে কাজ করে আসছে বাংলাদেশ চ্যাপ্টার এর আয়োজন ‘টেইক ব্যাক দ্য টেক’।

তাদের কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে নারীদের প্রতি সহিংসতা ও অন্যান্য সহিংসতার বিরুদ্ধে সচেতনতা ও প্রযুক্তিগত দক্ষতা বাড়াতে অনলাইন সেশন, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারণা, বিশেষজ্ঞদের মতামত প্রচার করা।

সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইনেও নারীদের প্রতি সহিংসতার সংখ্যা বাড়ছে। অনলাইনে হয়রানির শিকার নারীদের বেশিরভাগেরই বয়স ১৫ থেকে ২৫ এর মধ্যে। এসব নারীর মধ্যে বেশিরভাগ যৌন হয়রানি, হ্যাকিং, সাইবার পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইলিংয়ের শিকার হন। এসব অভিযোগের মধ্যে হ্যাকিং ২০ শতাংশ, ফেইক আইডি ২০ শতাংশ, হয়রানি/মানহানি ১৮ শতাংশ, সাইবার পর্নোগ্রাফি ১৪ শতাংশ, মোবাইলের মাধ্যমে আর্থিক প্রতারণা ১৪ শতাংশ, ব্ল্যাকমেইল/চাঁদাবাজি ৭ শতাংশ, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ ১ শতাংশ ও অন্যান্য ৬ শতাংশ।

দক্ষিণ আমেরিকার ডমিনিকান রিপাবলিকের স্বৈরাচারী শাসকের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় ১৯৬০ সালের ২৫ নভেম্বর তিন বোনকে হত্যা করা হয়। নারীর উপর এই নির্যাতন সারাবিশ্বে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। ১৯৮১ সালে ২৫ নভেম্বর দক্ষিণ আমেরিকার নারীদের এক সম্মলনে এই দিনকে ‘নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৯৯৯ সালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২৫ নভেম্বরকে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে এবং ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়কে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ হিসেবে ঘোষণা করে।

এজেড / নভেম্বর ২৬/২০২০/১৮২৫

আরও পড়ুন –

নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও সরাতে বিটিআরসিকে নির্দেশ

যৌন হয়রানির অভিযোগ : নারী গেইম ডেভেলপারদের

তথ্যপ্রযুক্তিতে নারী : কতটা এগোচ্ছে দেশ?

পথে-ঘাটে নারীর নিরাপত্তায় পিংম‍্যাপ

*

*

আরও পড়ুন