Techno Header Top and Before feature image

মহাবিশ্ব ও মানব মস্তিষ্কের অবাক করা সাদৃশ্য

ছবি: ইন্টারনেট থেকে নেওয়া

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: মহাবিশ্বের সঙ্গে মানুষের মস্তিষ্কের কার্যক্রমের সাদৃশ্য বিষয়ক নানান থিওরি দীর্ঘদিন ধরেই চলে এসেছে। অনেকেই আবার এমনও প্রশ্ন তুলেছেন যে মহাবিশ্ব কী আসলে একটি অতিকায় মস্তিষ্ক? এই প্রশ্নের মিমাংসা সহসাই যে হচ্ছে না তা প্রশ্নাতীত। তবে উৎসুক বৈজ্ঞানিকরা মস্তিষ্ক ও মহাবিশ্বের কর্মপদ্ধতি ও উপাদানের অনুপাতের সাদৃশ্য বিষয়ক নানান গবেষণা জারি রেখেছেন।

সম্প্রতি ইতালির একজন নিউরোলজিস্ট ও একজন অ্যাস্ট্রোফিজিসিস্ট মিলে এই প্রশ্নের জবাব দিতে একটি প্রাথমিক অনুসন্ধান করেছেন। তাদের অনুসন্ধানে দেখা গেছে কর্মপদ্ধতি ও উপাদানের অনুপাতের দিক থেকে মহাবিশ্বের সঙ্গে মানুষের মস্তিষ্কের সাদৃশ্য রয়েছে।

মানুষের মস্তিষ্কে রয়েছে ৬৯ বিলিয়ন নিউরন এবং মহাবিশ্বে আছে ১০০ বিলিয়ন গ্যালাক্সি। মহাবিশ্বের ৭২ শতাংশ ডার্ক ম্যাটার এবং মানুষের মস্তিষ্কের ৭৭ শতাংশ পানি। অর্থাৎ, দুটি সিস্টেমের মধ্যেই বেশিরভাগ খালি অংশ এবং এতে কানেকশন নড রয়েছে। যার অনুপাতও অনেকটা একই রকম।

এসব সামঞ্জস্য দেখেই যে কোনও উপসংহারে আসা যাবে তা নয়। গবেষকরা তাদের অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে বলেন, “এই দুটি কাঠামোর মধ্যে গঠনগত সাদৃশ্য খুবই অবাক করা। এমন হতে পারে যে দুটি কাঠামোই একই মূলনীতি অনুসরণ করে বিবর্তিত হয়েছে।”

সায়েন্স অ্যালার্ট অবলম্বনে এমআর/নভে ২১/২০২০/২২২০

আরও পড়ুন

সৌরজগতের প্রান্ত থেকে তোলা পৃথিবীর একমাত্র ছবির নতুন ভার্সন

মহাবিশ্ব শুরুর সংকেত শনাক্ত করবে পারমাণবিক ঘড়ি

আগামীর বিদ্যুতের চমক

*

*

আরও পড়ুন