জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড ঘোষণায় আসছেন জয়

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নিজেদের উদ্ভাবনী শক্তিতে দেশ গঠনে ভূমিকা রাখা তরুণদের স্বীকৃতি ও অনুপ্রেরণার পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।  

মঙ্গলবার রাত ৮টায় ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই ঘোষণায় আসছেন তিনি। 

সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) ট্রাস্টি এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে এই অনুষ্ঠানের শুরু হবে। 

Techshohor Youtube

চতুর্থ জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড-২০২০ এ  প্রথম পর্যায়ে  নারীর ক্ষমতায়ন, শিশু অধিকার, প্রতিবন্ধীদের ক্ষমতায়ন, ক্ষতিগ্রস্ত ও পিছিয়ে পড়া মানুষের ক্ষমতায়ন, চরম দরিদ্রদের ক্ষমতায়ন ও যুব উন্নয়নের ছয়টি সাব-ক্যাটাগরিতে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হবে।

আর দ্বিতীয় পর্যায়ে মাদকবিরোধী সচেতনতা কার্যক্রম, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জরুরি কার্যক্রম, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন-সম্পর্কিত কার্যক্রম, স্বাস্থ্যশিক্ষা এবং সচেতনতা কার্যক্রম, সামাজিক-সাংস্কৃতিক উদ্যোগ এবং দুর্যোগ মোকাবিলা ও ঝুঁকি হ্রাসসহ সাতটি সাব ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড থাকছে।

এবার চলতি বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর হতে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত অনলাইন নিবন্ধনে ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সীদের প্রায় ছয়শ’র বেশি উদ্যোক্তা ও সংগঠন আবেদন করে। তারা নারীর ক্ষমতায়ন, শিশু অধিকার, প্রতিবন্ধীদের ক্ষমতায়ন, পিছিয়ে পড়া মানুষের ক্ষমতায়ন, যুব উন্নয়ন, অতি দরিদ্র মানুষের ক্ষমতায়ন, মাদকবিরোধী সচেতনতা অভিযান, কোভিড-১৯ মোকাবেলায় জরুরি কার্যক্রম, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন, নবায়নযোগ্য বা গ্রিন এনার্জির ব্যবহার, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা ও সচেতনতা, সংস্কৃতি উদ্যোগ এবং দুর্যোগ মোকাবেলার মতো কাজের মাধ্যমে সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছেন। 

এর মধ্যে হতে বাছাই করে ৫০ সংগঠনকে এবার বিজয়ীর প্রাথমিক তালিকায় রাখা হয়েছে। 

২০১৪ সালের নভেম্বরে সিআরআইয়ের তত্ত্বাবধানে যাত্রা শুরু করে ‘ইয়াং বাংলা’। এরপর হতে প্রতি বছর সমাজ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাওয়া যুব উদ্যোক্তা ও সংগঠনকে অনুপ্রাণিত করতে প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’ দেওয়া হয়ে আসছে। 

২০১৫ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত এই স্বীকৃতিতে ১৩০টি যুব সংগঠন ইয়াং বাংলা সম্মাননা পেয়েছে। 

দেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে তরুণ প্রজন্মকে সরাসরি অন্তর্ভুক্ত করা এবং তাদের নতুন ধারণা ও উদ্ভাবনকে বিশ্বে তুলে ধরে ‘ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রায় তিন লাখ সদস্য, ৫০ হাজারের বেশি স্বেচ্ছাসেবী এবং ৩১৫টির বেশি সংগঠন এ যুক্ত হয়ে কাজ করে যাচ্ছে।   

বিজয়ী ঘোষণার অনুষ্ঠান দেখতে যেতে পারেন ফেইসবুকের এই ঠিকানায় এবং ইউটিউবের এই ঠিকানায়।       

এডি/২০২০/নভেম্বর১৭/১৬২০

আরও পড়ুন – 

আওয়ামী লীগ না হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ হতো না : জয়

*

*

আরও পড়ুন