Techno Header Top and Before feature image

প্রশিক্ষণ পেলেন কুমিল্লার উদ্যোক্তারা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কুমিল্লার উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প এবং স্টার্টআপ কুমিল্লা।

শহরের টাউন হলের কুমিল্লা ক্লাবে শনিবার ‘রোড টু স্টার্টআপ এন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ অ্যান্ড ইনোভেশনস’ বিষয়ক এই মেন্টরিং কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক আয়োজন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম, এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা-৬ আসনের এমপি জনাব আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব জনাব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী, আইসিটি বিভাগের iDEA প্রকল্পের পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক এবং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ আবুল ফজল মীর।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, ডিজিটাইজেশনের মাধ্যমে দেশের অসংখ্য উন্নয়ন করা হচ্ছে। বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে সময়কে কাজে লাগাতে হবে এবং দুর্নীতিকে না বলতে হবে। তরুণ উদ্ভাবকদের মেধা, সৃজনশীলতা ও মানসিক শক্তিকে কাজে লাগাতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাংসদ আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার কুমিল্লার বিভিন্ন অর্জনের কথা তুলে ধরেন । তরুণদের মাঝে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উল্লেখ্যযোগ্য বিভিন্ন স্মৃতি এবং মুক্তিযুদ্ধের চিত্র বর্ণনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তিতে উন্নয়নের একটি চিত্র তুলে ধরেন।

এরপর কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এমরান কবির চৌধুরী তরুণদের উদ্ভাবনের গুরুত্ব এবং দেশের খাদ্য, পুষ্টি সমস্যা নিরসনে উদ্ভাবনের প্রয়োজনীয়তা তাঁর বক্তব্যে বিভিন্ন উদাহরণের মাধ্যমে তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক স্টার্টআপ কুমিল্লার এ ধরণের উদ্যোগকে স্বাগত জানান। তিনি তরুণদের একজন সফল উদ্যোক্তা হিসেবে পরিণত হবার জন্য অনুপ্রাণিত করেন।

শেষে সভাপতির বক্তব্যে কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর সকলকে ধন্যবাদ জানান।

এই আয়োজনে দিনব্যাপী মেন্টরিং প্রোগ্রাম আয়োজন করে স্টার্টআপ কুমিল্লা। আইডিয়া জেনারেশন, বিজনেস প্রেজেন্টেশন, আর্ট অব বিজনেস মডেল ক্যানভাস, পিচিংসহ বিভিন্ন বিষয় এই মেন্টরিং প্রোগ্রামের অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

মেন্টরিং প্রোগ্রাম শেষে পিচিং কম্পিটিশন আয়োজনের মাধ্যমে বাছাইকৃত স্টার্টআপসমূহ আইডিয়া প্রকল্পের মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা প্রি-সিড গ্র্যান্টের জন্য সরাসরি আবেদন করতে পারবে। এছাড়া আইডিয়া প্রকল্পের সিলেকশন কমিটির সামনে প্রি-সিড গ্র্যান্টের জন্য পিচিং করার সুযোগ পাবে।

অনুষ্ঠানে আরও ‍উপস্থিত ছিলেন আইডিয়া প্রকল্পের সিনিয়র পরামর্শক আর এইচ এম আলাওল কবিরসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্র-ছাত্রীরা।

এডি/২০২০/নভেম্বর১৫/১৩২০

*

*

আরও পড়ুন