Techno Header Top and Before feature image

যা ইচ্ছা তা লেখায় বিবিসির নিষেধাজ্ঞা

নিউজ চ্যানেল বিবিসির লোগো। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সোশ্যাল মিডিয়ায় নিরপেক্ষ থাকার উপায় শেখাতে কর্মীদের জন্য গাইডলাইন তৈরি করেছে যুক্তরাজ্যের টিভি চ্যানেল বিবিসি।

এই গাইডলাইন অনুযায়ী, সাধারণ জনগণের জন্য বানানো নীতিমালা, রাজনৈতিক কিংবা বিতর্কিত বিষয় নিয়ে ব্যক্তিগত মতামত সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে পারবেন না বিবিসির কর্মীরা। সহকর্মীর বিরুদ্ধে কিছু লিখলেও সেখানে বিবিসির নাম জড়ানো যাবে না। যে কোনো বিষয়ে পক্ষপাতিত্ব এড়াতে লাইক, ফলো, রিটুইট বা শেয়ার করা থেকেও বিরত থাকতে হবে। বিবিসির ডিরেক্টর জেনারেল টিম ডেভির উদ্যোগে এ গাইডলাইন বানানো হয়েছে।

যারা সংবাদ পাঠক/পাঠিকা, চলমান, তথ্য সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে রিপোর্ট করেন এবং নেতৃত্ব পর্যায়ে রয়েছেন তাদের জন্য আরও কঠোর গাইডলাইন তৈরি করা হবে।

সংবাদ পাঠক/পাঠিকাদের অনেকেই ইতোমধ্যে টুইটারে নিজস্ব মতামত প্রকাশ করে সমালোচিত হয়েছেন।  এদের মধ্যে অন্যতম গ্যারি লিনেকার। তিনি ফুটবল বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘ম্যাচ অব দ্য ডে’ এর উপস্থাপক। তবে টুইটারে প্রায়ই অন্যান্য বিষয় নিয়ে নিজের মতামত দেন।

বিবিসি এশিয়ান নেটওয়ার্কের সংবাদ পাঠক ববি ফ্রিকশন সরকারের বিরুদ্ধে টুইট পোস্ট করেন। পরে বিবিসি কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে তা ডিলিট করতে বাধ্য হন।

এছাড়াও, বিবিসির বাইরে কাজ করে কে কতো আয় করছেন তা পাবলিক ডেটাবেইজে প্রকাশেরও নিয়ম জারি করেছেন তিনি। এতোদিন পর্যন্ত যে কোনো বাণিজ্যিক কাজে অংশ নিতে বিবিসির অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন পড়তো। এখন প্রতি প্রান্তিকের আয় প্রকাশও বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

*

*

আরও পড়ুন