Samsung IM Campaign_Oct’20

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে প্রযুক্তিই আনবে সমৃদ্ধি

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : করোনার মহামারির প্রভাব কাটিয়ে উঠতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রয়োগে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি আনার বিষয়ে অনলাইনে অধিবেশন আয়োজিত হয়েছে।

এটুআই এবং ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম-এর যৌথ উদ্যোগে শনিবার ‘বাংলাদেশের এসএমই খাতে ডিজিটাল রূপান্তর ত্বরাণ্বিতকরণ’ অধিবেশনের প্যানেল ডিসকাশন পর্বটি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম-এর প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির হেড অব গভর্নমেন্ট অ্যাফেয়ার্স (সেন্টার ফর দ্য ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশন) শেখ তানজিব ইসলাম।

তার মতে, মূল অর্থনৈতিক খাতের সাথে ডিজিটালাইজেশন-এর সমন্বয় ঘটলে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি সম্ভব। এ সময় তিনি ১৩ টি দেশের মূল অর্থনৈতিক কাঠামো এবং ডিজিটাল প্রযুক্তির সমন্বয় এবং ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম-এর ভূমিকা ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন।

ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম-এর দক্ষিণ এশিয়ার কমিউনিটি স্পেশালিস্ট সুচি কেদিয়া বলেন, এসএমই খাত-কে সমৃদ্ধ করতে হলে আঞ্চলিকভাবে সমন্বয় করতে হবে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন, সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগের সমন্বয় সাধন করা গেলে স্থানীয় পরিসর থেকে জাতীয় পরিসরে পরিবর্তন করা সম্ভব।

সেশনে অংশগ্রহণকারীরা দেশের এসএমই খাতের সমৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকারি ও বেসরকারি খাতের যৌথ উদ্যোগ, প্রত্যন্ত অঞ্চলেও ডিজিটাল সেবা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে নতুন উদ্যোক্তা তৈরি, ই-কমার্স খাতের সাথে ডিজিটাল প্রযুক্তির সমন্বয় এবং ডিজিটাল এসএমই হাব তৈরির ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন।

অধিবেশনের প্যানেল ডিসকাশন পর্বে অংশ নেন বিডিজবস ডট কম ও আজকের ডিল-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিম মাশরুর, ওয়ার্ল্ড ব্যাংক-এর এডুকেশন স্পেশালিষ্ট টিএম আসাদুজ্জামান, ইউনিসেফ বাংলাদেশ-এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার (জেনারেশন আনলিমিটেড বাংলাদেশ) ম্যারিনি অহলার্স, সমাজসেবা অধিদফতর-এর অতিরিক্ত পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মো. কামরুজ্জামান, বাংলাদেশ ব্যাংক-এর মহাব্যবস্থাপক (স্পেশাল প্রোগ্রাম) হুসনে আরা শিখা, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন-এর পরিচালক (দক্ষতা ও প্রযুক্তি) মো. আব্দুস ছালাম এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশন-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. শফিকুল ইসলাম।

অধিবেশনে দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উপর ভিত্তি করে চারটি ব্রেকআউট পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এটুআই-এর ন্যাশনাল কনসালট্যান্ট (সার্ভিস ডিজাইন এনালিস্ট) মো. গোলাম সারওয়ার-এর তত্বাবধানে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে ই-সার্ভিস, এটুআই-এর রুরাল ই-কমার্স টিম লিডার রেজওয়ানুল হক জামি-এর তত্বাবধানে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে ই-কমার্স-এর পরিধি নির্ধারণ, ইউনাইটেড ন্যাশনস ক্যাপিটাল ফান্ড-এর কান্ট্রি লিড মো. আশরাফুল আলম-এর তত্বাবধানে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে অর্থায়ন এবং এটুআই-এর পলিসি স্পেশালিস্ট (স্কিলস ফর এমপ্লয়িমেন্ট) আসাদ-উজ-জামান-এর তত্বাবধানে উদ্যোক্তাদের দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক উন্মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করে বিসিক, বিটাক, নাসসিব, এস এম ই এফ, এল জি ই ডি, ডি সি সি এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধিরা।

এজেড/ অক্টোবর ১৮/২০২০/১৩৩৮

*

*

আরও পড়ুন