Samsung IM Campaign_Oct’20

টিকটক কেনার দৌড়ে সামিল যেসব মার্কিন কোম্পানি

টিকটক। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক কেনার জন্য রীতিমত প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। এবার সেটি কেনার আগ্রহ দেখিয়েছে মার্কিন রিটেইল জায়ান্ট ওয়ালমার্ট।

ওয়ালমার্টের কর্মকর্তারা বলেছেন, টিকটকের সঙ্গে যুক্ত হতে পারলে তাদের ব্যবসাও বাড়বে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক নির্বাহী আদেশে দেশটিতে টিকটক নিষিদ্ধ করতে ৯০ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে। তবে এই সময়ের মধ্যে আমেরিকান মালিকানায় থাকা কোনো প্রতিষ্ঠান এর মধ্যে কিনে নিতে পারবে। 

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অভিযোগ করেছেন, টিকটক দেশের তথ্য নিয়ে চীনে কমিউনিস্ট পার্টির কাছে পাচার করে। একই সঙ্গে তারা যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীদের নজরদারী ও গুপ্তচরবৃত্তি করছে।

অবশ্য সবসময় এমন অভিযোগ সবসময় অস্বীকার করে এসেছে চীনা প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স। 

এর আগে টিকটক কেনার আগ্রহের কথা জানা গেছে মার্কিন আরেক জায়ান্ট মাইক্রোসফটের কাছ থেকে। প্রতিষ্ঠান দুটি এক হতে আলোচনা-অগ্রগতি হয়েছিল বলেও গণমাধ্যমের খবরে শোনা গেছে। 

ওয়ালমার্টের একজন মুখপাত্র বলেছেন, আমাদের বিশ্বাস ওয়ালমার্ট এবং মাইক্রোসফটের মধ্যে পার্টনারশিপ হলে একদিকে যুক্তরাষ্ট্রে টিকটক ব্যবহারকারীদের যেমন আশা পূরণ হবে তেমনি মার্কিন সরকারকেও সন্তুষ্ট করা যাবে।

মাইক্রোসফট এবং ওয়ালমার্ট এক হয়ে টিকটক কেনার জন্য আরেকটি প্রযুক্তি কোম্পানি ওরাকলের সাথে প্রতিযোগিতা করছে।

ওদিকে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল পত্রিকা খবর দিয়েছে যে সোশাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটারও টিকটক কেনার চিন্তাভাবনা করছে।

টিকটকের মার্কিন শাখার দাম তিন হাজার কোটি ডলার উঠতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২০১৮ সালে টিকটক মার্কিন যুক্তরাজ্যে ব্যবসা শুরু করলে দ্রুতই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। দেশটিতে এখন ১০ কোটির বেশি সক্রিয় টিকটক ব্যবহারকারী রয়েছে। 

বাইটড্যান্সের প্রতিষ্ঠান টিকটককে সম্প্রতি নিষিদ্ধ করেছে ভারত। 

বিবিসি অবলম্বনে ইএইচ/আগস্ট ২৯/২০২০/১২০০

আরও পড়ুন – 

যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রায় চার লাখ ভিডিও সরালো টিকটক

টিকটকের বিকল্প ট্রিলারে অ্যাকাউন্ট খুললেন ট্রাম্প

টুইটারও টিকটক কিনতে চায়

টিকটক বিক্রিরও পথ নেই বাইটড্যান্সের

১ টি মতামত

*

*

আরও পড়ুন