Techno Header Top and Before feature image

গ্রহ-নক্ষত্রের বৈজ্ঞানিক নাম প্রতিষ্ঠা করবে নাসা

এস্কিমো নেবুলার বৈজ্ঞানিক নাম এনজিসি ২৩৯২। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সব গ্রহ, উপগ্রহ ও ছায়াপথকে সেগুলোর শুধু বৈজ্ঞানিক নামেই উল্লেখ করবে নাসা।

ডাক নাম বাতিলের বিষয় এক  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে তারা জানিয়েছে, নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ‘এস্কিমো নেবুলা’-কে ডাকতে হবে ‘এনজিসি ২৩৯২’ নামে।

সহজভাবে বললে নেবুলা হলো নক্ষত্র তৈরির আঁতুর ঘর। রাতের বেলা পরিস্কার আকাশে গ্যাসের তৈরি মেঘ ও ধুলার আস্তরণ দেখা যায়। এটাই নেবুলা নামে পরিচিত। নেবুলা নিয়ে নাসার আপত্তি নেই। তাদের আপত্তি ‘এস্কিমো’ শব্দটি নিয়ে। কারণ মেরু অঞ্চলে আদিবাসীদের এ নামে ডাকা হতো এবং এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে বর্ণবাদের ইতিহাস।

কাছাকাছি অবস্থিত দুটি ছায়াপথকে ‘সাইমিস টুইনস গ্যালাক্সি’ বলা হয়। এখন থেকে এনজিসি ৪৫৬৭ ও এনজিসি ৪৫৬৮ নামে আলাদাভাবে পরিচিতি পাবে ছায়াপথ দুটি। সারিবদ্ধভাবে গ্রহ নক্ষত্রের নাম সাজাতেই বৈজ্ঞানিক নাম প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছে নাসা।

বিজ্ঞান সবার জন্য আর এর প্রতিফলন সর্বক্ষেত্রেই রাখতে চায় তারা। এ বিষয়ে নাসার ভাষ্য, বিজ্ঞানীরা বৈষম্য ও অসমতার বিরুদ্ধে কাজ করে। কিছু মহাজাগতিক গ্রহ নক্ষত্রের নাম যে শুধু অসংবেদনশীলই নয় ক্ষতিকরও।

নাসার ডাইভার্সিটি ও ইক্যুয়াল অপরচুনিটি বিভাগের অ্যাসোসিয়েট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর স্টিফেন টি জানিয়েছেন, এই ডাক নামগুলোর ঐতিহাসিক বা ঐতিহ্যবাহী অর্থ রয়েছে যা আপত্তিকর কিংবা স্বাগত জানানোর মতো না। এই সমস্যা ঠিক করতে নাসা দায়বদ্ধ।

ভবিষ্যতে শুধু ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিকাল ইউনিয়নের নির্ধারিত নামেই ব্যবহার করবে নাসা।

দ্য নিউইয়র্ক পোস্ট ও দ্য গার্ডিয়ান অবলম্বনে এজেড/ আগস্ট ০৯/২০২০/১২১৫

আরও পড়ুন –

নেপচুনের উপগ্রহে যেতে চায় নাসা 

নাসার ছবিতে নতুন রূপে ধরা দিলো শনি 

মঙ্গলে যেতে প্রস্তুত নাসার হেলিকপ্টার!

*

*

আরও পড়ুন