স্লাইডার ক্যামেরার যতো ফোন

ওয়ানপ্লাস ৭ প্রো। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আজই প্রথমবারের মতো আন্ডার ডিসপ্লে প্রযুক্তির ফোনের দেখা মিললো।

এই প্রযুক্তি একেবারেই নতুন হওয়ায় নচ বিহীন ফোনের ট্রেন্ড শুরু হতে বেশ কিছু দিন সময় লাগবে। তবে স্লাইডার ক্যামেরার ফোন কিনলেও নচ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।  বাজারে যতো নচবিহীন ফুল ভিউ ডিসপ্লের ফোন আছে সেগুলো নিয়েই সাজানো হলো ফিচারটি।

ওয়ান প্লাস ৭ প্রো

ফুল ভিউ ডিসপ্লের ফোনটিতে আছে টুকে অ্যামোলেড প্যানেল, যার রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্জ। ১২ জিবি র‍্যাম,  স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ ও ৪৮ মেগাপিক্সেলের ফোনটি গত বছরের মে মাসে বাজারে আসে। বাজারে এর দাম ৬৯ হাজার।

আসুস জেনফোন ৬জেড

এতে রয়েছে রোটেটিং পপআপ মেকানিজম। ফলে ৪৮ ও ১৩ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স দিয়ে রিয়ার ও ফ্রন্ট ক্যামেরার কাজ হয়। ফোনটির ডিসপ্লেতে আছে এলসিডি ডিসপ্লে। ভাঙ্গন রোধে আছে গরিলা গ্লাস ৬।

ব্যাকআপের জন্য আছে ৫০০০ এমএএইচের ব্যাটারি, যা ১৮ ওয়াটের কুইক চার্জ ৪.০ প্রযুক্তি সাপোর্ট করে। গত বছর বাজারে আসা ফোনটির দাম ৪৪ হাজার টাকা।

কে২০ ও কে২০ প্রো

ফোন দুটির মধ্যে মূল পার্থক্য প্রসেসরে।  রেডমি কে ২০ প্রোতে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসর। কে২০ মডেলের প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০। এছাড়া, দুটি ফোনেই রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ২০১৯ সালের জুনে বাজারে আসা কে২০ প্রোয়ের দাম ৪৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৮০

স্যামসাংয়ের প্রথম স্লাইডার ক্যামেরার ফোন এটি। পপ-আপ হওয়ার পর ক্যামেরাটির রিয়ার সেটআপ সামনের দিকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঘুরে যায়। এতে রয়েছে ৪৮, ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এর সঙ্গে ডেপথ সেন্সিংয়ের জন্য রয়েছে টিওএফ থ্রিডি ক্যামেরা। গত বছর বাজারে আসা ফোনটির দাম প্রায় ৬০ হাজার টাকা।

কে৩০ প্রো

রেডমি কে২০ প্রোয়ের উন্নত সংস্করণ হলো কে৩০ প্রো।  ৬৪ মেগাপিক্সেলের ফোনটিতে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ফোনটি এ বছরের মার্চে বাজারে আসে।

গত বছর ডিসেম্বরে বাজারে আসে কে৩০। তবে ফোনটিতে স্লাইডার ক্যামেরা নেই।

ভিভো ভি ১৫ প্রো 

এতে আছে ৩২ মেগাপিক্সেলের পপআপ সেলফি ক্যামেরা। ফোনটির পেছনে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। অ্যামোলেড ডিসপ্লের ফোনটির প্রসেসরে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৬৭৫।

রিয়েলমি এক্স

এতে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফুল এইচডি প্লাস ফোনটির প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৭১০। ফোনটি গত বছরের জুলাইতে বাজারে আসে।

হুয়াওয়ে ওয়াই৯ প্রাইম

এর সামনে ও পেছনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ফোনটির প্রসেসরে আছে কিরিন ৭১০, ৪ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। ফোনটি বাজার আসে গত বছর। এর দাম ২৪ হাজার টাকা।

অপো রেনো ১০এক্স জুম

এতে রয়েছে ‘শার্ক ফিন’ ডিজাইনের পপ আপ ক্যামেরা। ফোনটিতে যে কোনো ছবি ১০ গুণ জুম করে তোলা যায়। ফোনটির প্রসেসরে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫। গত বছর বাজারে আসা ফোনটির দাম ৪৭ হাজার টাকা।

অপো এফ ১১

মিডিয়াটেক হেলিও পি৭০ প্রসেসরের ফোনটিতে সেলফি ক্যামেরা ৩২ মেগাপিক্সেলের। পেছনের আছে ৪৮ ও ৫ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ। ৬ জিবি র‍্যাম ও ৪০০০ এমএএইচের ব্যাটারি সম্বলিত ফোনটির দাম ৩১ হাজার ৯৯০।

স্মার্টপ্রিক্স অবলম্বনে এজেড/ আগস্ট ০৮/২০২০/১৪৪২

*

*

আরও পড়ুন