পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা খুন

ফাহিম সালেহ। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশীয় রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ যুক্তরাষ্ট্রে নিজ ফ্ল্যাটে খুন হয়েছেন। নিউইয়র্কের ম্যানহাটন এলাকায় অবস্থিত ওই অ্যাপার্টমেন্ট থেকে তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পাঠাওয়ের মার্কেটিং লিড সৈয়দা নাবিলা মাহবুব টেকশহরডটকমকে বলেন, ফাহিম সালেহ এর মৃত্যুর সংবাদে তারা মর্মাহত। তারা পাঠাওয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালাতে পারছেন না। চলতি বছরের জানুয়ারিতেও ফাহিম বাংলাদেশে এসেছিলেন বলে জানান তিনি।

পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী হুসাইন এম ইলিয়াস বলছেন, দেশ ও দেশের বাইরে প্রযুক্তিনির্ভর জীবনযাপনের সম্ভাবনায় বিশ্বাসী ছিলেন ফাহিম। আমাদের উপর তার ছিলো দৃঢ় আস্থা, আর তাই একই লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্যে শুরু হয়েছিলো আমাদের যাত্রা। পাঠাও পরিবারের সঙ্গে তিনি সবসময় থাকবেন।

মঙ্গলবার ফাহিম সালেহ একবারও ফ্ল্যাট থেকে বের না হওয়ায় খোঁজ নিতে যান তার বোন। এ সময় ফ্ল্যাটে ঢুকতে না পেরে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে। ইলেক্ট্রিক করাত দিয়ে লাশের শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ কেটে পলিব্যাগে ঢুকিয়ে রাখে খুনি। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে খুনিকে শনাক্তের চেষ্টা করছে পুলিশ।

গত বছর কয়েক মিলিয়ন ডলারে বিলাস বহুল অ্যাপর্টমেন্টটি কিনেছিলেন ফাহিম। যুক্তরাষ্ট্রের বেন্টলি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনফরমেশন সিস্টেম নিয়ে পড়াশোনা করেছেন তিনি।

নাইজেরিয়া ও কলম্বিয়ায়ও তার রাইড শেয়ারিং কোম্পানি ছিলো। নাইজেরিয়ায় মোটরসাইকেল রাইড শেয়ারিং অ্যাপ গোকাডা তিনি চালু করেন ২০১৮ সালে। কলম্বিয়ায় প্রতিষ্ঠিত পিক্যাপ স্টার্টআপটির মার্কেট ভ্যালু দেড় কোটি ডলার। বর্তমানে পাঠাও ৮২০ কোটি টাকা বা ১০০ মিলিয়ন ডলারের কোম্পানি।

এজেড/ এডি/জুলাই ১৫/২০২০/১২৪০

আরও পড়ুন –

আরও বিনিয়োগ পাচ্ছে পাঠাও! 

সরেজমিন : পিছিয়ে পড়ছে পাঠাও 

কর্মীদের ৪১% পর্যন্ত বেতন ছাঁটলো পাঠাও 

*

*

আরও পড়ুন