যুক্তরাজ্যে ফাইভজি স্থাপনের কাজ ফসকে গেলো হুয়াওয়ের

যুক্তরাজ্যে ফাইভজি টাওয়ার বসাতে পারবে না হুয়াওয়ে। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যুক্তরাজ্যে ফাইভজি স্থাপনের ইকুইপমেন্ট (সরঞ্জাম) সরবরাহের কাজ হারিয়েছে হুয়াওয়ে।

আগামী ৩১ ডিসেম্বরের পর যুক্তরাজ্যের কোনো মোবাইল অপারেটর চীনা কোম্পানিটির কাছ থেকে ফাইভজি ইকুইপমেন্ট কিনতে পারবে না। ইতোমধ্যে স্থাপিত হুয়াওয়ের সব ফাইভজি ইকুইপমেন্টও ২০২৭ সালের মধ্যে সরানোর নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

যুক্তরাজ্যের নেটওয়ার্কে স্থাপিত ইকুইপমেন্টের মাধ্যমে হুয়াওয়ে তথ্য চুরি করতে পারে এ আশংকায় ফাইভজি স্থাপনের কাজে তাদেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : হঠাৎই হুয়াওয়ের প্রতি সন্দেহ বাড়িয়েছে যুক্তরাজ্য!

ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের (এনএসসি) এক মিটিংয়ে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বোরিজ জনসন হুয়াওয়ের ফাইভজি ইকুইপমেন্ট নিষিদ্ধের প্রস্তাবনায় সাক্ষর করেন। মঙ্গলবার হাউজ অব কমন্সে দেশটির ডিজিটাল সচিব অলিভার ডাওডেন আনুষ্ঠানিকভাবে সিদ্ধান্তটি জানান।

তিনি বলেন, সিদ্ধান্তটি নেওয়া সহজ ছিলো না। কিন্তু যুক্তরাজ্যের টেলিকম নেটওয়ার্ক, জাতীয় নিরাপত্তা ও অর্থনীতির জন্য এটাই সঠিক সিদ্ধান্ত। বর্তমানে ও ভবিষ্যতে এর সুফল পাওয়া যাবে। তিনি আরও জানান, হুয়েওয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারিতে যুক্তরাজ্য ফাইভজি নেটওয়ার্ক স্থাপনের কাজ বছরখানেক পিছিয়ে যাবে। বাড়তি হিসেবে ব্যয় হবে ২৫০ কোটি ডলার।

এ বিষয়ে হুয়াওয়ের মুখপাত্র জানিয়েছে, রাজনৈতিক প্রভাবে হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ফোন ব্যবহারকারীদের জন্য এটি খারাপ সংবাদ।

যুক্তরাজ্যের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে মার্কিন সচিব মাইক পমপেও। জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে গত বছর হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ করে যুক্তরাষ্ট্র।

বিবিসি ও জিএসএমএরিনা অবলম্বনে এজেড/জুলাই ১৫/২০২০/১১২৪

*

*

আরও পড়ুন