দুর্ঘটনায় আয়না হারালেন মহাকাশ স্টেশনের নভোচারী

রুটিন কাজে কব্জিতে থাকা আয়না ভেঙে ভেসে যায় মহোকাশে। ছবি : সিনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে রুটিন রক্ষণাবেক্ষণ করার সময়, নাসার নভোচারী ক্রিস ক্যাসিডি দুর্ঘটনাক্রমে গ্রহের চারপাশে ভাসমান স্পেস জাঙ্কে যুক্ত হয়েছিল।

শুক্রবার সিএনএন জানায়, ক্যাসিডি যখন আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনের বাইরের দিকে ৪২৮ পাউন্ড বা ১৯৪ কিলোগ্রাম ওজনের একটি বড় ব্যাটারি প্যাকটি সরিয়ে ফেলেন, তখন তাঁর স্পেসসুটে সংযুক্ত একটি ছোট আয়না ভেঙে গিয়ে ভেসে যায়।

মহাকাশচারীদের কব্জিতে এই জাতীয় আয়না সংযুক্ত থাকে। যা নভোচারীদের কোনো স্পেসসুটে বৈদ্যুতিক উপাদান দেখতে এবং যে কোনো ব্লাইন্ড স্পট দেখতে ব্যবহার করে থাকে। আয়নাগুলো ৫ বাই ৩ ইঞ্চি মাপের হয়। আর ওজন ৫০ গ্রামের মতো।

নাসা তাদের ব্লগ পোস্টে জানায়, প্রথম শিডিউল কাজের সবকিছুই নিঁখুতভাবেই দুজন নভোচারী শেষ করেছেন। সেখানে শুধু আয়না দুর্ঘটনা বাদ দিলে ক্যাসিডি এবং সহযোগী নাসার নভোচারী রবার্ট বেহনকেন স্পেস স্টেশনটির সৌর অ্যারেগুলোর জন্য শক্তি সরবরাহ করে এমন ব্যাটারি প্রতিস্থাপনের জন্য তাদের চারটি স্পেসওয়াক শেষ করেছেন। এরপর তাদের দ্বিতীয় নির্ধারিত স্পেসওয়াকের জন্য পরিকল্পনা ও কাজগুলো আগামী বুধবার করবেন।

নভোচারী দুজন হাইড্রোজেন ব্যাটারি বদলে সেখানে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি প্রতিস্থাপন করেছেন।

নতুন ব্যাটারিগুলো স্পেস স্টেশনটিতে শক্তি সরবারহে নতুন মাত্রা আনবে বলেও জানানো হয়েছে। যা সূর্যের শক্তিকে ব্যবহার করতেও পারবে।

শেষ স্পেস ওয়াকে ক্যাসিডি ৬ ঘণ্টা সাত মিনিট ধরে ছিলেন।

ইন্টারনেট অবলম্বনে ইএইচ/জুন২৮/২০২০/১৭৪০

আর পড়ুন –

প্রথমবার নভোচারীসহ উড়লো স্পেসএক্সের রকেট 

মহাকাশ যাত্রার আগে যা করেন নভোচারীরা 

ভাইরাল হওয়া ‘চাঁদে নভোচারী’ ভিডিওটি ভারতের

*

*

আরও পড়ুন