Techno Header Top and Before feature image

নেপচুনের উপগ্রহে যেতে চায় নাসা

নেপচুনের চাঁদ ট্রাইটন। ছবি : নাসা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সৌরজগতে সূর্য থেকে সবচেয়ে দূরে রয়েছে নেপচুন। এই গ্রহের একটি উপগ্রহ ট্রাইটন। উপগ্রহটি সম্পর্কে জানতে আজ থেকে ৩০ বছর আগে নাসা একটি মহাকাশ যান পাঠিয়েছিলো। মহাকাশ যান ভয়েজেস ২ দিয়ে উপগ্রহটির ৪০ শতাংশ ছবি ধারণ করা গেছে।

এবার আরও কিছু তথ্য পেতে নাসাকে ‘ট্রাইডেন্ট’ মিশন পরিচালনার প্রস্তাব দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। পুরো উপগ্রহের উপরিভাগে কী কী আছে, কোনো সমুদ্র আছে কিনা ও ভূমি থেকে বরফের ছটা কেনো বের হচ্ছে সেগুলো নিয়ে গবেষণার প্রস্তাব দিয়েছেন তারা। আগামী বছর তিনটির মধ্যে কোনো দুটি বিষয় গবেষণার জন্য অনুমোদন পাবে। এরপর ২০২৫ সালের অক্টোবরে ট্রাইটনের উদ্দেশে মহাকাশ যান পাঠাবে নাসা। তবে ২০৩৮ সালের আগে ট্রাইটনে সেটি পৌঁছাবে না। পৃথিবী থেকে নেপচুনের দূরত্ব ২৮০ কোটি মাইল। তাই মিশনটি থেকে তথ্য পেতে অন্তত ১৩ বছর সময় লাগবে।

ডামি ছবিতে বরফের ছটা। ছবি : ইন্টারনেট

উপগ্রহটিতে কেনো বরফের ছটা বের হচ্ছে সে প্রশ্নটিই গবেষকদের কৌতূহল বাড়িয়ে দিয়েছে। কারণ সূর্যের অনেক দূরে অবস্থান করলেও উপগ্রহটির আয়নমণ্ডল সৌর জগতের অন্যান্য যেকোনো উপগ্রহের থেকে ১০ গুণ বেশি সক্রিয়।

এ বিষয়ে ট্রাইডেন্ট প্রকল্পের বিজ্ঞানী কার্ল মিশেল বলেন, ট্রাইটন খুবই অদ্ভুত। আমরা জানি, এর পৃষ্ঠতলে এমন কিছু উপাদান আছে যেগুলো আগে কখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি। কীভাবে উপগ্রহটি এখনো সক্রিয় আছে তা আমরা জানতে চাই।

২০৪০ সালের মধ্যে এই মিশন পরিচালনা না করতে পারলে সূর্য আরও উত্তরে চলে যাবে। সেক্ষেত্রে অপেক্ষা করতে হবে ১০০ বছর।

টেক টাইমস ও নাসা অবলম্বনে এজেড/ জুন ২২/২০২০/১৪

*

*

আরও পড়ুন