Techno Header Top

আপাতত বন্ধই থাকছে রাইড শেয়ারিং

ছবি : টেকশহর
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্বাস্থ্য বিধি মেনে সোমবার থেকে গণপরিবহণ চালু হলেও রাইড শেয়ারিং সার্ভিসগুলো বন্ধ থাকছে। 

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থার পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত উবার, পাঠাও, সহজ, ওভাইয়ের মতো সার্ভিসগুলো তাদের কার্যক্রম শুরু করতে পারবে না। 

গতকাল শনিবার এসব সার্ভিস চালু না করতে ১২টি রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দিয়েছে বিআরটিএ। 

তবে কেনো সেসব সেবা বন্ধ রাখতে বলেছে বিআরটিএ সে সম্পর্কে চিঠিতে কিছু উল্লেখ করেনি প্রতিষ্ঠানটি। 

অন্যদিকে রোববার থেকেই ঢাকার বেশ কিছু এলাকায় মোটরসাইকেলে অ্যাপের বদলে দরকষাকষি করে যাত্রী নিতে যেতে দেখা গেছে।

রাইড শেয়ারিংয়ের বেশিরভাগ এখন মোটরসাইকেল নির্ভর হয়ে পড়ায় সেখানে যাত্রী ও চালকের মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় থাকবে না। আর এমনটা মনে করেই বিআরটিএ সার্ভিসটি চালু করতে দেয়নি। অথচ বাস্তবতা এর ঠিক উল্টো হয়ে গেছে।

রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান পাঠাও-এর মার্কেটিং এবং জনসংযোগ বিভাগের পরিচালক সৈয়দা নাবিলা মাহাবুব টেকশহরডটকমকে বলেন, গত দুই মাস থেকেই রাইড শেয়ারিং সেবা বন্ধ রয়েছে। এই সময়ে অনেক যাত্রী বাইকারদের সঙ্গে অফলাইনে দরকষাকষি করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। ফলে এখানে নিরাপত্তা ঝুঁকি বাড়ছে। গণপরিবহণে সামাজিক দূরত্ব মানা খুব কঠিন। সেটাও অনিরাপদ। 

এই অবস্থায় তারা বিআরটিএর কাছে আহ্বান জানিয়েছেন রাইড শেয়ারিং চালু করে দেবার। চালু হলে যাত্রী এবং চালক উভয়ই স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলাচল করলে সমস্যা হবে না বলেও জানান তারা। 

রাইডারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পাঠাও ফেইসমাস্ক, গ্লভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা, স্বাস্থ্য বিধি সম্পর্কে সচেতনতাসহ অন্যান্য সুরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহ করে আসছে বলেও জানান নাবিলা। 

এর আগে গত মার্চের ২৬ তারিখ থেকে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করলে তখন থেকে গণপরিবহণ বন্ধ করা হয়। একই সঙ্গে রাইড শেয়ারিং সার্ভিসও বন্ধ করা হয়। 

ইএইচ/মে৩১/২০২০/১৯২০

আরও পড়ুন – 

বাংলাদেশে বন্ধ হচ্ছে উবার ইটস

হট রাইডে পাওয়া যাবে বিলাসবহুল গাড়ি

রাইডার ও যাত্রীর চেহারা যখন এক

*

*

আরও পড়ুন