ভাইস প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ, বড় সমস্যা অ্যামাজনের সামনে

ছবি: অ্যামাজন লগো। ইন্টারনেট থেকে নেওয়া

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: অ্যামাজন থেকে তিন কর্মীকে ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে কোম্পানির একজন ভাইস প্রেসিডেন্টের পদত্যাগ বিশ্ব মিডিয়ার বেশ মনোযোগ কেড়েছে।

আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তথাকথিত বিগ টেক কোম্পানিগুলোর কর্মী ব্যবস্থাপনার অনেক অসঙ্গতি সামনে চলে আসছে।

ঘটনার শুরু হয় কোম্পানির অভ্যন্তরীণ নীতিমালা লঙ্ঘন করার দোহাই দিয়ে তিনজন কর্মীকে ছঁটাই করা হলে। যদিও, ওই তিন কর্মী ঝুঁকিতে কাজ করা কর্মীদের সুরক্ষার বিষয়ে অ্যামাজনের উদাসীনতার বিষয়টি সামনে এনেছিলেন।

এসব ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট টিম ব্রে পদত্যাগ করেন। তিনি মনে করেন, এই ঘটনা প্রমাণ করে কোম্পানির কাজের পরিবেশে ব্যাপক সমস্যা রয়েছে। তিনি এও বলেন যে, এই সমস্যা অ্যামাজনের একার নয়। বড় বড় সব টেক কোম্পানিতেই এমন সমস্যা আছে।

তার মতে, এমন সমস্যাগুলো সৃষ্টি হয় যখন কোম্পানি এতো বড় হয়ে যায় যে একজনের পক্ষে পুরো কোম্পানির সবদিকের খবর রাখা প্রকৃতপক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়ে।

তবে তিনি মনে করেন অ্যামাজন পৃথিবীর সবচেয়ে সু-ব্যবস্থাপিত কোম্পানি। তারা যা বলে তা করে। ক্রেতা তাদের কাছে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। আর এর সর্বোচ্চ বোঝাটা কর্মীদেরই বইতে হয়। করোনার এই সময়ে কর্মীদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষাহীনতা প্রকাশ পেয়েছে। কর্মীদের তরফ থেকে রাখা এক অসমর্থিত তথ্যে দেখা যায় কোম্পানিটির অন্তত এক হাজার কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং সাতজন মারা গেছেন।

টিম ব্রের মতে, এসব সমস্যা সমাধান করতে হলে আইন করতে হবে। কারণ বর্তমান অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় শুরুতেই আসে গ্রোথ ও এফিশিয়েন্সি। কর্মীদের মানসিক চাপ আসে সবার পরে।

অ্যামাজনে এই সংস্কৃতির প্রভাব আরও বেশি। এমনও জানা গেছে যে মাঠ কর্মীদের কোম্পানিতে ‘ওয়ার্কার বি’ বা কর্মী মৌমাছি বলা হয় এবং তাদের করোনাভাইরাস মোকাবেলায় চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়।

পদত্যাগের কারণে টিম ব্রেকে গচ্চা দিতে হবে ১০ লাখ ডলারের মতো। তবে ক্ষতি যত বড়ই হোক না কেন তিনি বিগ টেক কোম্পানিতে আর কাজ করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। তিনি মনে করে,ন ইন্টারনেটের ব্যাপ্তিতে তাঁর ভূমিকা ও দায় আছে। সেই দায় নিয়েই তিনি ক্ষেত্রটি থেকে সরে যাচ্ছেন।

এদিকে তিনজন প্রতিবাদী কর্মীকে ছাঁটাইয়ের বিষয়টি অনেক দূর গড়িয়েছে। নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল নিজে এ সংক্রান্ত একটি মামলা পরিচালনা করছেন।
উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস মহামারীর শুরুর দিকে কর্মী সুরক্ষার বিষয়টি সামনে আসলে অ্যামাজন কর্মীদের জন্য একটি বীমার ব্যবস্থা করে যা বাতিল করে দেওয়া হচ্ছে।

ইন্টারনেট অবলম্বনে এমআর/ মে ১৮/২০২০/১০৩৮

আরও পড়ুন – 

অ্যামাজনের ৬০০ কর্মী করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ৬ জনের

কর্মীদের পর্যাপ্ত সুরক্ষা দিচ্ছে না অ্যামাজন!

কারখানাতেই করোনা টেস্ট ল্যাব করছে অ্যামাজন

*

*

আরও পড়ুন