এসএমপির বিধি-নিষেধ কার্যকর চায় তিন অপারেটর

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সিগনিফিকেন্ট মার্কেট পাওয়ার (এসএমপি) অপারেটর বা একচেটিয়া অপারেটর হিসেবে গ্রামীণফোনের ক্ষেত্রে যেসব বিধি-নিষেধ আরোপ হওয়ার কথা সেগুলো দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানিয়েছেন অপর তিন অপারেটর।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) কাছে গত সোমবার এ বিষয়ে অনুরোধ করেছে রবি, বাংলালিংক ও টেলিটক।

সামাজিক দায়বদ্ধতার নামে এসএমপি অপারেটর বাজার নষ্ট করছে বলেও অভিযোগ করে তিন অপারেটর।

তিন অপারেটর প্রধানের যৌথ স্বাক্ষরে যাওয়া চিঠিতে তারা বলছেন, করোনাকালে দেশের জরুরি এ পরিস্থিতিতে সব অপারেটর তাদের সাধ্যমতো গ্রাহকদের জন্য কাজ করছে।

তবে গ্রামীণফোনের নাম না উল্লেখ করে তারা বলেছেন, এসএমপি ঘোষিত অপারেটরটি যেভাবে বাজার দখলের জন্য দেশের টেলিটকম খাতকে ঝুঁকির মধ্যে ঠেলে দিচ্ছে তা এ খাতটি ধ্বংস হয়ে যেতে পারে।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি গ্রামীণফোনকে গত বছর ফেব্রুয়ারিতে এসএমপি ঘোষণা করে। এরপর ১৫ মাসেও এ সংক্রান্ত বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়নি।

এসএমপি’র বিধি-নিষেধ কার্যকর হলে গ্রামীণফোনের সাড়ে সাত কোটি গ্রাহককে তখন খানিকটা বেশি দামে সেবা কিনতে হবে।

টেলিকম খাতের জন্য বিটিআরসি যে এসএমপি নীতিমালা তৈরি করেছে সেখানে কোনো অপারেটরের কার্যকর গ্রাহক বা আয় বাজারের ৪০ শতাংশ হলে তাকে এসএমপি ঘোষণা কর যাবে। সেই ফর্মুলায় জিপিকে এসএমপি ঘোষণা করা হয়।

পরে মে মাসে চারটি বিধি-নিষেধ দেওয়া হয়, যেখানে তাদের কলের মূল্য মিনিট প্রতি অন্যদের চেয়ে পাঁচ পয়সা বেশি হওয়ার বিষয়টি সবচেয়ে গুরুত্ব পায়।

তবে বিধি-নিষেধ কার্যকর করার যে প্রক্রিয়া নীতিমালায় ঘোষণা করা হয়েছিল সেটি যথাযথভাবে প্রতিপালিত না হওয়ায় জিপি আদালতে গিয়ে বিষয়টি পিছিয়ে দিতে সক্ষম হয়।

এর আগে প্রথম দফায় বেশ কিছু বিধি-নিষেধ আরোপের কথা বললেও বিটিআরসি সেগুলো থেকে পিছিয়ে যায়।

এবার গত শুক্রবার ব্যালেন্স না থাকা এক কোটি গ্রাহককে মোট ১০ কোটি মিনিট ফ্রি দেয় গ্রামীণফোন। একই সঙ্গে ডাক্তারদেরকে এক টাকায় মাসে ৩০ জিবি ডেটা দেওয়া এবং ছয় মাস পর্যন্ত এই অফার চালু রাখার ঘোষণায় বাকি তিন অপারেটর চাপের মধ্যে পড়ে।

পরে সোমবার রবি, বাংলালিংক এবং টেলিটক চিঠি দিয়ে দ্রুততার সঙ্গে বিটিআরসিকে এসএমপি’র বিধি-নিষেধ কার্যকর করার অনুরোধ জানায়।

ওই চিঠিতে বলা হয়, এসএমপি ঘোষিত অপারেটরকে এমন সুবিধা দেওয়া উচিত নয় যা দিয়ে সে বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়। তারা দ্রুত এসএমপি অপারেটরের লাগাম টেনে ধরারও আহ্বান জানান।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের এক কর্মকর্তা জানান, তারা দ্রুত এসএমপি’র বিধি-বিধান কার্যকর করার প্রক্রিয়া শুরু করেছেন।

চলতি সপ্তাহে এ বিষয়ে একটি বৈঠক হবে বলেও জানান তিনি।

জেডআই/ইএইচ/আরআর/১৩/২০২০/২০.২১

আরও পড়ুন – 

মূল্যযুদ্ধে জিপি-রবি

করোনার সুযোগে আগ্রাসনের অভিযোগ রবির

এসএমপির নতুন বিধিনিষেধে জিপির কলরেট বাড়ছে

১ টি মতামত

  1. Mohammed jaker ullah said:

    GP তেই বিশ্বাস, GP তেই আস্থা, GP তেই বাংলাদেশ। রবি, বাংলা লিংক ডাকাত কোম্পানি সবার উচিৎ এদের তালাক দেয়া।

*

*

আরও পড়ুন