ব্লকচেইন প্রযুক্তির সমস্যাকে সুযোগে পরিণত করতে হবে : পলক

ফাইল ছবি
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডে অংশ নেওয়া বিজয়ী দলগুলোকে নতুন উদ্ভাবন দিয়ে সমস্যাকে সুযোগে পরিণত করার আহ্বান জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী রোববার ডিজিটাল প্লাটফর্মে ‘ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশ ২০২০’  শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এমন আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, উদ্ভাবনী এবং সৃজনশীল চিন্তা থেকে যে কোন সমস্যাকে সুযোগে পরিণত করতে পারে দেশের তরুণ শিক্ষার্থীরা। তাদের উদ্ভাবনী ও সৃজনশীল চিন্তার সঙ্গে ব্লকচেইনের মতো অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়  ঘটিয়ে কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তা ব্যবহার করা হলে দেশ অনেকদূর এগিয়ে যাবে।

তিনি বলেন, প্রয়োজন থেকেই নতুন নতুন উদ্ভাবনের জন্ম হয়। করোনাকালে আমরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছি ঠিকই কিন্তু বুদ্ধিবৃত্তিক উদ্ভাবন দিয়ে ভার্চুয়াল জগতে আমরা একে অপরের কাছাকাছি আছি।

অনুষ্ঠানে ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশের সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ এন করিম অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে ১০টি দলকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ী দলগুলোকে পুরস্কারের অর্থের ভার্চুয়াল চেক প্রদান করা হয়।

ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডের সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী। ছবি : সৌজন্যে

চ্যাম্পিয়নশিপ অ্যাওয়ার্ডটি প্রদান করা হয় সদ্য প্রয়াত জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর নামে, যিনি ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশের উপদেষ্টা  ছিলেন।

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী চ্যাম্পিয়ন দলের প্রধান অনিরুদ্ধ’কে তার নগদ অ্যাকাউন্টে পুরস্কারের এক লাখ টাকা ট্রান্সফার করেন। বিজয়ীদের হংকং   ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের স্পন্সর করা হবে বলেও জানানো হয়।

হাবিবুল্লাহ বলেন, একটি জুরি বোর্ডের মাধ্যমে অংশগ্রহণকারি ৬২টি দলের ৬২টি প্রকল্পের মূল্যায়ন করে ১০ দলকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

বিজয়ী দলগুলো হচ্ছে, হাইপারঅ্যাক্টিভ অরেঞ্জেস, টিম লিড চেইন, ডিইউ নিমবাস, টিম ডিজিটাল ইনোভেশন, টর, ওয়েব থ্রি ডট ওয়ান, ব্রোগ্রামারস, এভিয়াটো, ডিইউ হাইপালেজার, কসমিক ক্রিউ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ৫৭ জন বিচারক নিয়ে গঠিত বোর্ড গত এপ্রিলে অনুষ্ঠত ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণকারীদের থেকে প্রকল্প জমা নেয়।

অনলাইন পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রয়াত জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর স্মরণে একটি ভিডিও ক্লিপ প্রদর্শন করা হয়।

কম্পোট্রালার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল মুসলিম চৌধুরী, তথ্যপ্রযুক্তি সচিব এন এম জিয়াউল আলম,  শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল, ব্লকচেইন অলিম্পিয়াড বাংলাদেশের আহ্বায়ক ও বুয়েটের কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অধ্যাপক ড. এম কায়কোবাদ ও সমন্বয়ক হাবিবুল্লাহ এন করিম, বেসিসের প্রেসিডেন্ট আলমাস কবির, হংকং ব্লকচেইন সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ড. লরেন্স মা, এমআইটি’র প্রফেসর এ্যালান এল্ডারম্যান, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের রেজাউল করিম বক্তব্য রাখেন।

ইএইচ/মে০৩/২০২০/২০৩৯

আরও পড়ুন –

ব্লকচেইন অলিম্পিয়াডের প্রশিক্ষণ হলো অনলাইনে

দেশে চালু হচ্ছে ব্লকচেইন প্রযুক্তি

‘পরিবর্তনে সহায়ক হবে ব্লকচেইন এবং এআই’

রকেট গতির বিটকয়েন এবং ব্লকচেইন-ক্রিপ্টোকারেন্সির কথা

*

*

আরও পড়ুন