৩ নগরীতে ভ্রাম্যমাণ ডাকঘর

ভ্রাম্যমান ডাক সেবা চালু করলো ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। ছবি : সৌজন্যে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মানুষের দোর গোড়ায় ডাক সেবা দিতে ভ্রাম্যমাণ ডাকঘর চালু করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। 

সোমবার থেকে ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা মেট্রোপলিটন শহরে এ ভ্রাম্যমাণ ডাকঘর সেবা চালু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী ভ্রাম্যমাণ ডাকঘর চালু করা হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার সোমবার তার বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ঢাকায় জিপিও চত্বরে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে নয়টি ভ্রাম্যমান ডাকঘর উদ্বোধন করেন।

ঢাকা  মেট্রোপলিটন শহরের লকডাউনের আওতাভুক্ত এলাকায় জনগণের দোরগোড়ায় ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক, সঞ্চয়পত্র, জরুরি চিঠিপত্র, ওষুধ ও করোনা চিকিৎসা সংক্রান্ত উপকরণ, পার্সেল, ডিজিটাল কমার্স, ইএমটিএস ও ডাক জীবন বীমা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সেবাটি চালুর নির্দেশ দেন মোস্তাফা জব্বার।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব নূর-উর-রহমান এ সময় ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন।

ঢাকা জিপিও চত্ত্বরে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আজিজুল ইসলাম এবং ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্রসহ ডাক অধিদপ্তরের পদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর সরকারি সাধারণ ছুটি হলেও ডাক অধিদপ্তর গত ২৮ মার্চ থেকে জরুরি সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এ সময়ের মধ্যে সাত লাখ ৫৯ হাজার গ্রাহককে ডাক সেবা প্রদান করা হয়েছে এবং এক হাজার ২০০ কোটি টাকার লেনদেন সম্পন্ন করা হয়েছে।

সরকার ইতোমধ্যে টেলিফোন ও ইন্টারনেট সেবার পাশাপাশি ডাক সেবাকে জরুরি পরিষেবা হিসেবে ঘোষণা করে। এর ফলে জিপিও, জেলা পর্যায়ের প্রধান ডাকঘর, শহরস্থ সাব পোস্ট অফিস এবং সীমিত পরিসরে গ্রামীণ ডাকঘর খোলা রয়েছে।

ইএইচ/এপ্রি২৭/২০২০/১৯৫০

আরও পড়ুন – 

নিরবচ্ছিন্ন ডাক সেবায় টেলিযোগাযোগ বিভাগে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ 

টেলিযোগাযোগ-ইন্টারনেট এখন জরুরি সেবা

টাকা দিয়ে এলে আলোচনার দরজা খোলা : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

*

*

আরও পড়ুন