ব্যবহারকারী বাড়লেও পিছিয়ে স্কাইপ

কনফারেন্স কলে ব্যবহারকারী। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পৃথিবী জুড়ে চলছে লকডাউন। সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও অফিস বন্ধ থাকায় ব্যবহার বেড়েছে মাইক্রোসফটের দুটি ভিডিও কনফারেন্স টুলের। এর মধ্যে একটি হলো স্কাইপ আরেকটি হলো মাইক্রোসফট টিম।

গত মার্চে স্কাইপের ব্যবহার ৭০ শতাংশ বৃদ্ধি পায় আর প্রতিদিন প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করছে ৪ কোটি মানুষ। মাইক্রোসফট টিমের ব্যবহার বেড়েছে ১ হাজার শতাংশ।

 স্কাইপের ব্যবহার তুলনামূলকভাবে কম কারণ কল, চ্যাট ও ভিডিও কনফারেন্সের জন্য আরও বেশ কিছু অ্যাপ বাজারে এসেছে।

অন্যদিকে, কল, ভিডিও কনফারেন্স ও চ্যাটের বাইরেও মাইক্রোসফট টিমে অনেক কিছু করা সম্ভব। এ কারণে একই ধরণের সেবা দেওয়ার প্ল্যাটফর্ম স্কাইপ ফর বিজনেস বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাইক্রোসফট। সে অনুযায়ী, ২০২১ সালের জুলাইয়ের পর আর স্কাইপ ফর বিজনেসের সেবা পাওয়া যাবে না।

মাইক্রোসফট টিমকে আরও উন্নত করতে প্রতিনিয়তই এতে বিভিন্ন ফিচার যোগ করছে মাইক্রোসফট। স্কাইপেও কিছু সুবিধা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। যেমন ব্যাকগ্রাউন্ড  ব্লার করার সুবিধা স্কাইপেও যুক্ত হবে।

এমনকি কিবোর্ডের শব্দ, দরজা লাগানোর শব্দ বা ভ্যাকিউম ক্লিনারের শব্দ ফিল্টার করার ফিচার‌ও যুক্ত হবে স্কাইপে।

তবে একই ধরণের দুটি সেবার মান ধরে রাখতে গেলে অনেক বিনিয়োগের প্রয়োজন। এছাড়াও, স্কাইপের যে ভিডিও কোয়ালিটি তা যুগের সঙ্গে বেমানান। তাই স্কাইপ বন্ধও হয়ে যেতে পারে। আর এমন কিছু হলে মাইক্রোসফট টিমেই হবে স্কাইপ ব্যবহারকারীদের ঠিকানা।

স্কাইপের যাত্রা শুরু হয় ২০০৩ সালে। ভিডিও ও অডিও কলের জন্য সফটওয়্যারটি তৈরি করেছিলেন নিকলাস জেনস্ট্রোম ও জেনাস ফ্রিস। ২০১১ সালে সাড়ে ৮ কোটি ডলারে স্কাইপের মালিকানা কিনে নেয় মাইক্রোসফট।

ইন্টারনেট অবলম্বনে এজেড/এপ্রিল ১২/২০২০/১৬৫৩

*

*

আরও পড়ুন