করোনাভাইরাস : বেশি ঝুঁকি প্লাস্টিকের গ্যাজেটে

মাউসের অনেকটা অংশেই থাকে প্লাস্টিক। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কোভিড-১৯ রোগ ছড়ায় ড্রপলেটের মাধ্যমে। কাশি ও হাঁচি দিলে এবং কথা বলার সময় করোনাভাইরাস যুক্ত ড্রপলেট শরীর থেকে বেরিয়ে আসে।

এই ড্রপলেট কোনো বস্তুর উপর পরলে সেখানে করোনাভাইরাস রয়ে যায়। সেই বস্তু অন্য কেউ স্পর্শ করার পর চোখে, নাকে ও মুখে হাত দিলে তা শরীরে প্রবেশ করে।

কোথায় কতোক্ষণ পর্যন্ত ভাইরাসটি বেঁচে থাকবে তা নির্ভর করে বস্তুর ধরণের উপর।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউড অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিস গবেষণায় জানিয়েছে, প্লাস্টিকে ও স্টেইনলেস স্টিলে ৭২ ঘণ্টা, কার্ডবোর্ডে ২৪ ঘণ্টা ও তামার উপর ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত বাঁচতে পারে করোনাভাইরাস। অর্থাৎ আমাদের ফোন (যেগুলোতে প্লাস্টিক রয়েছে) ও কম্পিউটারের মাউসও ঝুঁকিপূর্ণ। কারণ প্লাস্টিকের তৈরি ডিভাইসে ভাইরাসটি ৩ দিন পর্যন্ত বাঁচতে পারে।

তাই ঝুঁকি এড়াতে বার বার হাত ধোয়ার পরমর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। সাবান ও পানি দিয়ে ১৫-২০ সেকেন্ড হাত ধুলে ভাইরাসটি মরে যায়। যেসব জিনিস আমরা বেশি স্পর্শ করি সেগুলোও পরিষ্কার রাখতে হবে যেমন ফোন, কম্পিউটার, ডেস্ক, টেবিল, কিবোর্ড মাউজ।

এছাড়াও, লিফটের বাটন, রান্নাঘর, বাথরুম ঘন ঘন পরিষ্কার করতে হবে। হাত না ধুয়ে নাকে, মুখে ও চোখে হাত দিতেও নিষেধ করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এজেড/মার্চ/২০২০/১১১০

আরও পড়ুন –

স্মার্টফোন পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখবেন যেভাবে

করোনাভাইরাস রোধে ফোন পরিষ্কারে স্যামসাংয়ের পরামর্শ

গাড়ি জীবাণু মুক্ত রাখতে যা করবেন

রিমোট পরিষ্কার করবেন যেভাবে

*

*

আরও পড়ুন