Header Top

সরকারের কাছে অনুদান চায় বেসিস

basis-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর :  সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মীদের ছয় মাসের বেতন চেয়েছে বেসিস। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সরকারের কাছে এমন দাবি সফটওয়্যার খাতের সংগঠনটির।

করোনার প্রভাবে টিকে থাকার ঝুঁকির আশংকায় তথ্যপ্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে সচল রাখতে কর্মীদের বেতন অনুদানসহ বেশ কয়েকটি দাবির কথা জানিয়েছেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর।

বর্তমান পরিস্থিতির গুরুত্ব বিবেচনা করে কার্যনির্বাহী কমিটির জরুরি বৈঠকে এসব দাবিদাওয়া ঠিক করে সরকারের কাছে দেয়া হয়েছে বলে টেকশহরডটকমকে জানিয়েছেন বেসিস সভাপতি।

সৈয়দ আলমাস  কবীর বলেন, বিশ্বজুড়েই ব্যবসায় ক্ষতি হবে। যা অবস্থা তাতে এখানেও অনেক ক্ষতি হবে। ইতোমধ্যে যারা আরএমজি নিয়ে কাজ করে তারা ভুগতে শুরু করেছে। খাতটির কোম্পানিগুলো তাদের আইটি সেবার বিল দেয়া, নতুন নতুন কাজ করা ও সিস্টেমের আপগ্রেড করা বন্ধ করে দিয়েছে। ইউরোপের কাজ যারা করেন তাদের বিল পেন্ডিং হয়ে গেছে।

‘আগামী তিন হতে ছয় মাসের জন্য বেসিস সদস্য কোম্পানিগুলোর কর্মীদের স্যালারির জন্য অনুদান চাওয়া হয়েছে। সঙ্গে স্থানীয় ও বিদেশের বাজারে এই সময়ের অফিস ভাড়ায় অনুদানও’ বলছিলেন তিনি।

বেসিস সভাপতি বলেন, এখন সরকারি কাজগুলো যেনো তাড়াতাড়ি স্থানীয় কোম্পানিগুলোকে দেয়া হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে সরকার অনলাইন এডুকেশন চালু, হেলথ কেয়ার, এন্টারটেইনমেন্ট সেবা দিতে কাঠামো ও কনটেন্ট তৈরি করবে। এগুলো তৈরি করার বিষয়ে সরকার দ্রুত দিক নির্দেশনা দিক। মুজিব বর্ষের বিভিন্ন প্রকল্পগুলো দ্রুত দিয়ে দিলে কোম্পানিগুলো কাজে চলমান থাকবে, নতুন কাজ পাবে। লোকাল মার্কেট বাড়বে, রেভিনিউ ও ক্যাশফ্লো ঠিক থাকবে।  

এছাড়া যারা এক্সপোর্ট মার্কেটে কাজ করেন তাদের সফটলোন দেয়ার কথা বলা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসব দাবিদাওয়া তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশ অ্যামপ্লয়ার্স ফেডারেশনেও উদ্ভুত বিষয়গুলো নিয়ে বেসিসের প্রেক্ষাপট জানিয়ে দেয়া হয়েছে। 

এই অবস্থায় কোনোভাবেই যেন কর্মীদের বিনা বেতনে ছুটি বা চাকরিচ্যুতি না করা হয় সে আহবান জানান তিনি। বিষয়টি নিয়েও বাংলাদেশ অ্যামপ্লয়ার্স ফেডারেশনে আলোচনা হয়েছে। সব দাবিদাওয়া মিলে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে পেশ করা হবে।  

এডি/২০২০/মার্চ২৪/১০

*

*

আরও পড়ুন