১২ হাজার ৯৯০ টাকায় কোয়াড ক্যামেরা ও পাঁচ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির রিয়েলমি ৫আই দেশের বাজারে

রিয়েলমি ৫আই স্মার্টফোন। ছবি : সৌজন্যে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টেক-ট্রেন্ডি তরুণদের জন্য বাংলাদেশের বাজারে এসেছে রিয়েলমির ‘৫আই’ মডেলের হ্যান্ডসেট।

ফোনটির কোয়াড ক্যামেরার অসাধারণ ইমেজিং এক্সপেরিয়েন্স ইতোমধ্যে ক্রেতাদের মাঝে সাড়া ফেলেছে। ছবি তোলার জন্য ফোনটিতে মিনিম্যালিস্টিক ডিজাইনে চারটি রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। ১২ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরার পাশাপাশি রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ১১৯ ডিগ্রি আল্ট্রা ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স, ২ মেগাপিক্সেলের পোর্ট্রেইট লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ম্যাক্রো লেন্স।

রাতের আঁধারেও আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স দিয়ে ওয়াইড ছবি তোলার জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে উন্নত অ্যালগরিদমের নাইটস্কেপ ২.০। মূল ক্যামেরায় উন্নত স্ট্যাবিলাইজেশন থাকায় ভিডিও ধারণ হবে স্থিতিশীল।

আটটি এক্সক্লুসিভ বিউটিফিকেশন মোড যেমন, স্কিন স্মুদিং, স্লিম ফেইস, স্মল ফেইস, জ’লাইন ইমপ্রুভমেন্ট, বিগ আইজ, স্লিম নোজ, টাচ-আপ এবং থ্রি-ডি ফিচারের সুবিধাসম্পন্ন ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরায় তোলা যাবে আকর্ষণীয় সেলফি।

রিয়েলমি ৫আইয়ে তোলা আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ছবি। ছবি : সৌজন্যে

এছাড়াও, রিয়ার ক্যামেরা সেট-আপে ক্রোমা বুস্টের ব্যবহারে ছবি হবে প্রাণবন্ত। ক্যামেরায় থাকা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স মানব চোখের মতোই সব ধরনের রঙ ও উজ্জ্বলতা নিজে থেকেই বিবেচনা করতে সক্ষম। উন্নত টেক্সচার এবং পরিষ্কার ছবি তুলতে রিয়েলমি ৫আই ফোনে ব্যবহৃত কালার ম্যাপিং অ্যালগরিদম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

রিয়েলমি ৫আই-এ অ্যাপ্লিকেশন এবং অপারেটিং সিস্টেমের জন্য ব্যবহার করা যাবে ডার্ক মোড, যা প্রাণবন্ত ফোরগ্রাউন্ডে ব্যবহারকারীদের আরও দৃষ্টিবান্ধব ইন্টারফেস উপহার দেবে এবং চোখের ওপর চাপ কমিয়ে দীর্ঘক্ষণ ফোন ব্যবহারে সাহায্য করবে।

অনেক বেশি ডিটেইলসহ ওয়াইড ছবি তোলায় সাহায্য করবে ফোনটির ১১৯ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা। পাশাপাশি সাবজেক্টের মাত্র ৪ সেন্টিমিটার দূর থেকে ম্যাক্রো মোডে ছবি তোলা যাবে। ডেপথ সেন্সরের অনন্য সংযোজনে সাবজেক্ট এবং ব্যাকগ্রান্ডের দূরত্ব নির্ধারণ করে ছবিতে চমৎকার বোকেহ ইফেক্ট নিয়ে আসবে।

ট্রেন্ডসেটিং টেকনোলজির রিয়েলমি ৫আই স্মার্টফোনে ফোর-কে রেজ্যুলেশনের ভিডিও ধারণ করা যায়। সামনের এবং পেছনের ক্যামেরায় ইআইএস (ইলেক্ট্রনিক ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন) প্রযুক্তির ব্যবহারে ৭২০ পিক্সেলে প্রতি সেকেন্ডে ২৪০ ফ্রেমের চমৎকার স্লো-মোশন ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে।

শুধু এসবই নয়, ফোনে ভিডিও এডিটিংও করা যাবে খুব সহজে। ভিডিওর গতি পরিবর্তন ছাড়াও পাল্টানো যাবে ভিডিওর ফিল্টার, বসানো যাবে লেখা কিংবা প্রতিস্থাপন করা যাবে শব্দ। নানা থিমে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার মতো করে সে ভিডিও রেন্ডার করার অপশনও আছে ফোনটিতে।

দেশের বাজারে বিক্রি শুরু হয়েছে রিয়েলমি ৫আই। ছবি : সৌজন্যে

তরুণ প্রজন্মের সারাদিনের ফোনের ব্যবহার ও ৩০ দিনের স্ট্যান্ডবাই সুবিধার জন্য ৫আই স্মার্টফোনে সংযোজন করা হয়েছে পাঁচ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি।

নতুন প্রজন্মের মোবাইল ফোনের গেইমারদের গেইমিং এক্সপেরিয়েন্সকে আরও সমৃদ্ধ করতে স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার হয়েছে ১১ ন্যনোমিটারের শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ চিপসেট এবং ২.০ গিগাহার্টজের অপারেটিং ক্ষমতাসম্পন্ন প্রসেসর। থার্ড জেনারেশনের কোয়ালকম এআই ইঞ্জিনের সমন্বয়ে এই দামের ফোনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্স দেবে রিয়েলমি ৫আই। ফোনোটিতে বিশেষ এক অগ্নিনির্বাপক পর্দার ব্যবহারে ব্যাটারি এখন আরও বেশি নিরাপদ।

ব্যাকগ্রান্ডডের কোন অ্যাপ বন্ধ না করে একই সাথে অনেকগুলো অ্যাপ ব্যবহার করার সুবিধা দিতে ফোনটিতে আছে ৪ গিগাবাইট র‍্যাম এবং ৬৪ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজ।

অনবদ্য ‘সানরাইজ ডিজাইনের’ ফোনটি পাওয়া যাবে অ্যাকোয়া ব্লু এবং ফরেস্ট গ্রিন রঙে। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে আরো চমকপ্রদ করতে মাত্র ১২ হাজার ৯৯০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে টেক-ট্রেন্ডি এই স্মার্টফোনটি।

পিসি/ ২০২০/ মার্চ ২০/১০১৩

*

*

আরও পড়ুন