Techno Header Top and Before feature image

২০১৩ সালের পর সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় বিটকয়েন

এক সপ্তাহের ব্যবধানে বিটকয়েনের দাম কমেছে ৪৫ শতাংশ। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : খারাপ অবস্থার মধ্যে একটা সপ্তাহ কাটালো বিটকয়েন। ২০১৩ সালের পর আবার বড় দরপতন হয়েছে এই ভার্চুয়াল মুদ্রার।

গত সপ্তাহ শেষে প্রতি বিটকয়েনের মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ২০০ মার্কিন ডলার। আর এতে কমে গেছে এক সপ্তাহ আগের তুলনায় ৪৫ শতাংশ কমেছে দাম। আগের সপ্তাহে প্রতি বিটকয়েনের দাম ছিল ৯ হাজার মার্কিন ডলার।

এর আগে ২০১৩ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে বিটকয়েনের দাম পড়েছিল ৫০ শতাংশ। সে বছর এক বিটকয়েনের দাম ৮৬৪ মার্কিন ডলার থেকে কমে নেমে এসেছিল ৩৮২ মার্কিন ডলারে।

করোনাভাইরাসের প্রভাব এখন সবচেয়ে বেশি ইউরোপে। ইতোমধ্যে প্রায় দেড় লাখে ঠেকেছে কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। যাতে মারা গেছে সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ।

নতুন করে পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোতে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। যার ফলে গত সপ্তাহ থেকেই বিশ্বের শেয়ারবাজারে বড় ধরনের দরপতন শুরু হয়। যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এবং এশিয়ার প্রধান বাণিজ্যিক শেয়ারবাজারে দরপতনের পর বিটকয়েনের দামও কমে গেছে বলে বলছেন অর্থনীতিবিদরা।

তারা ধারণা করছেন, সামনের দিনে আরও বড় দরপতন ঘটতে পারে বিটকয়েনসহ অন্যান্য ভার্চুয়াল মুদ্রার।

ইতোমধ্যে অবশ্য ভার্চুয়াল মুদ্রা ইথেরামের দাম ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ কমে ১২৫ মার্কিন ডলার, রিপেল দশমিক ১৫ মার্কিন ডলার এবং প্রতি লিটকয়েন ৩৪ ডলারে নেমেছে।

সূত্র : ইন্টারনেট, ইএইচ/ মার্চ ১৪/ ২০২০/ ১৯০০

*

*

আরও পড়ুন