Samsung IM Campaign_Oct’20

আইফোনের হরেক নাম, হরেক দাম!

ক্যাভিয়ারের তৈরি দামি আইফোন। ছবি : ইন্টারনেট থেকে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সাধারণ আইফোনের দাম আর কতই? এক থেকে দেড় হাজার ডলার! কিন্তু জানেন কী, কাস্টমাইজড কিছু আইফোনের দাম লাখ ডলারের বেশি। তেমন আইফোন সম্পর্কে আমরা ক’জনই বা জানি! সেসব আইফোনের দাম জানলে আপনিও অবাক হয়ে যাবেন। লাখ লাখ টাকা দামের সেসব আইফোন সম্পর্কেই আজ আমরা জানাবো।

দাম জানার আগে আমরা জেনে নিই কারা তৈরি করে এসব দামি আইফোন।

ভিডিও পেতে টেকশহরের ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন

বিশ্বে দামি যেসব আইফোন তৈরি হয় তার বেশিরভাগই তৈরি করে রাশিয়ান প্রযুক্তি কোম্পানি ক্যাভিয়ার। ক্যাভিয়ার আগ্রহী ক্রেতাদের কাছ থেকে অর্ডার পেলে কাস্টমাইজ ডিজাইনে তা তৈরি করে দেয়। মানে আপনি কোনো ডিজাইনের কথা বললে তারা সেই ডিজাইনের আইফোন তৈরি করে দেয়।

হরেক নাম, হরেক তার দাম

সাধারণ একটি আইফোন ১১ কিনতে গেলে বাংলাদেশে দেড় লাখ টাকার মধ্যেই পাবেন। কিন্তু ক্যাভিয়ারের তৈরি আইফোন কি সেই টাকায় পাওয়া যাবে? চলুন দেখি পাওয়া যায় কিনা! 

সাইবারফোন

রাশিয়ান প্রতিষ্ঠানটি যেসব আইফোন রিডিজাইন করেছে তার মধ্যে আছে সাইবারফোন। বিজনেস ইনসাইডার জানাচ্ছে, ক্যাভিয়ার এখনো টেসলার সাইবারফোনের কাস্টমাইজ সংস্করণের দামের সঠিক তথ্য দেয়নি। তবে ফোনটির দাম শুরু হতে পারে পাঁচ হাজার ২০০ মার্কিন ডলার বা প্রায় সাড়ে চার লাখ টাকা থেকে। আইফোন ১১-কে রিডিজাইন করে সাইবারফোন তৈরি করছে তারা। অবশ্য এই দামের মাত্র  ৯৯টি ফোন তৈরি করবে ক্যাভিয়ার। 

গ্র্যান্ড কমপ্লিকেশন স্কেলেটন গোল্ড

আইফোন ১১ প্রো মডেলটিকে নতুন রূপে হাজির করেছে ক্যাভিয়ার। এই ডিজাইনের নাম দিয়েছে গ্র্যান্ড কমপ্লিকেশন স্কেলেটন গোল্ড। যার ২৫৬ জিবি সংস্করণটি তারা বিক্রি করছে ৭ হাজার ৬৫০ ডলারে বা সাড়ে ৬ লাখ টাকায়। আর ৫১২ জিবি সংস্করণটি বিক্রি করছে সাত লাখ টাকায়।

ইউনিভার্স টু ডায়মন্ড গোল্ড  

আইফোন ১১ প্রো মডেলটির আরেকটি ডিজাইন বিক্রি করছে কব্যাভিয়ার। ফোনটির ডিজাইনে ব্যবহার করা হয়েছে গোল্ড এবং ডয়মন্ড। ফোনটি কিনতে চান? যদি কিনতে চান তাহলে আপনাকে খরচ করতে হবে ৭৭ হাজার ৬৫০ ডলার। যা বাংলোদেশী টাকায় ৬৫ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। কী চোখ কপালে উঠেছে দাম শুনে?

অ্যাপোলো

চাঁদে যাবার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে একটি নতুন ডিজাইনের আইফোন তৈরি করেছে ক্যাভিয়ার। আইফোন ১১ প্রো মডেলটিকে তারা কাস্টমাইজ করেছে যার নাম দিয়েছে অ্যাপোলো। সেই অ্যাপোলো ৫১২ জিবি সংস্করণটি কিনতে আপনার খরচ করতে হবে ৫ হাজার ৯২০ ডলার বা প্রায় ৫ লাখ টাকা।   

সুপিরিয়র বিটলস গোল্ড

বিটলস শুধু মিউজিক নয়। বিটলস এখন একটি লাইফ স্টাইলের নাম। বিশ্বজুড়ে ব্র্যান্ডটির অসংখ্য ভক্ত রয়েছে। তাদের বিলাসবহুল আইফোন ব্যবহারের সুযোগ দিতে ক্যাভিয়ার ডিজাইন করেছে আইফোন ১১ প্রো। সুপিরিয়র বিটলস গোল্ড নামের ডিজাইন করা আইফোনটির ২৫৬ জিবি সংস্করণের দাম তারা ধরেছে ১২ হাজার ৫১০ মার্কিন ডলার বা সাড়ে ১০ লাখ টাকা! কি চোখ কপালে উঠেছে নিশ্চয়?

ক্রেডো ক্রিসমাস স্টার ডায়মন্ড

গত ক্রিসমাসের সময় একটি নতুন ডিজাইনের আইফোন ১১ প্রো এনেছিল ক্যাভিয়ার। ক্রেডো ক্রিসমাস স্টার ডায়মন্ড নামের সেই ডিভাইসে রয়েছে স্বর্ণখচিত ডিজাইন। আইফোনটির ৫১২ জিবি সংস্করণের দাম এক লাখ ২৯ হাজার ৯৫০ মার্কিন ডলার। যা বাংলাদেশি টাকায় আপনাকে গুণতে হবে এক কোটি দশ লাখ টাকার বেশি। কি দাম শুনে অবাক হলেন? 

ক্যাভিয়ার শুধু আইফোনেরই এমন কাস্টমাইজ ডিজাইন করে না। সেই তালিকায় রয়েছে স্যামসাংয়ের ফোন, অ্যাক্সেসরিজ হিসেবে ঘড়ি, এয়ারপডসসহ আরও নানান পণ্য। সেসব জিনিসেরও দাম এমনই চড়া।

দাম চড়া হলেও বিলাসবহুল সব ডিভাইস কিনতে বিশ্বের অনেক ধনকুবেরই মুখিয়ে থাকেন। এমনকি নিজেদের পছন্দ করা ডিজাইন দিয়েও স্মার্টফোন ও অ্যাক্সেসরিজ বানিয়ে নেন তারা। কেননা শখের দাম, লাখ টাকা, না শুধু লাখ নয়, কোটি টাকা।

ইএইচ/ ফেব্রু২৫/২০২০/ ১৭০০

*

*

আরও পড়ুন