এমআইএসটিতে প্রতিষ্ঠা করা হবে 'সাইবার রেঞ্জ' : পলক   

এমআইএসটিতে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের পুরস্কার দিচ্ছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী। ছবি : সৌজন্যে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সাইবার অ্যাটাক প্রতিরোধ ও পাল্টা অ্যাটাক বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিতে ২৭ কোটি টাকা ব্যয়ে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজিতে (এমআইএসটি) সাইবার রেঞ্জ প্রতিষ্ঠা করার কথা জানা জুনাইদ আহমেদ পলক।

তথ্যপ্রযুিক্ত প্রতিমন্ত্রী বলেন, সারা বিশ্ব এখন সাইবার ঝুঁকিতে রয়েছে। এর ফলে সাইবার অ্যাটাকের মাধ্যমে ব্যক্তি, পরিবার ও দেশের ক্ষতি করতে পারে।

এজন্য স্থানীয়ভাবে সলিউশনের পাশাপাশি গ্লোবাল সলিউশনের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন সমস্যার উদ্ভাবনমূলক সমাধান খুঁজে বের করতে তরুণদের প্রতি আহ্বান জানান।

শনিবার তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ ও  মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির উদ্যোগে মাল্টিপারপাস হলে আয়োজিত ‘জাতীয় কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা (এনসিপিসি) ২০২০’-এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে জাতিকে প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন করে তৈরি করতে হবে। তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞানসম্পন্ন মানবসম্পদ গড়ে তুলতে সরকার উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণি পর্যন্ত আইসিটি শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করেছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৮০০০ শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এছাড়া দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় স্পেশালাইজড ল্যাব প্রতিষ্ঠা করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইনোভেশন বা উদ্ভাবনই হচ্ছে প্রতিটি জাতির মূল শক্তি। উদ্ভাবনী কাজে তরুণ এবং স্টার্টাপদের  এগিয়ে নিতে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের আওতায় তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য সিড স্টেজে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত অনুদান এবং গ্রোথ স্টেজে এক থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত ভেঞ্চার ক্যাপিটাল হিসেবে দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও মেন্টরিং, কোচিংসহ বিভিন্নভাবে সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।

প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন  বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫০টি দল অংশগ্রহণ করে।

প্রতিযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সোয়াম্প ফায়ার দল চ্যাম্পিয়ন এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালযয়ের একটি দল প্রথম রানার আপ হয়।প্রতিমন্ত্রী বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন এমআইএসটির কমান্ডেন্ট মেজর জেনারেল ওয়াহিদ উদ জামান, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফর্মেশন সার্ভিসেসের ভাইস প্রেসিডেন্ট মুশফিকুর রহমান,  এমআইএসটির সিএসই বিভাগের প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন।

ইএইচ/ফেব্রু২২/ ২০২০/ ২২২২

*

*

আরও পড়ুন