Header Top

দূষণ কমানোর শপথ নিলো এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রি

সিঙ্গাপুরে আয়োজিত এয়ার শোয়ের চিত্র। ছবি : হ্যারিয়েট ডেইলি
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে এখন ঘন ঘন দাবানল, দাবদাহ ও ঝড় হচ্ছে। এই পরিস্থিতি বদলাতে সিঙ্গাপুরে আয়োজিত এয়ার শোতে কার্বণ নিঃসরণ কমিয়ে আনার শপথ নিয়েছে এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রি।

প্রতি বছর যে পরিমাণ কার্বণ নিঃসরণ হয় তার ৩ শতাংশ আসে প্লেন, জেট প্লেন ও হেলিকপ্টার থেকে। এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রি জানিয়েছে, ২০০৫ সালের তুলনায় ২০৫০ সালে কার্বন নিঃসরণ ৫০ শতাংশ কমানো হবে। একই সময়ের মধ্যে ব্রিটিশ এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রি জানিয়েছে, কার্বন নিঃসরণ শুন্যে নামিয়ে আনবে তারা।

তবে পরিবেশবাদীরা একে বলছেন, লোক দেখানো কর্মকাণ্ড। জেট ফুয়েল থেকে সৃষ্টি হওয়া দূষণ কমাতে তারা কিছুই করবে না।

তবে ইতোমধ্যে কিছু প্লেন নির্মাতা কোম্পানি পৃথিবীকে সবুজ রাখতে কিছু উদ্যোগ নিয়েছে। যেমন ইলেক্ট্রিক প্লেন তৈরির পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে ম্যাগনিক্স নামের একটি কোম্পানি। নতুন মডেলের প্লেন ‘দ্য মাভেরিক’ এর মাধ্যমে ২০ শতাংশ জ্বালানী কম পুড়বে বলে ঘোষণা দিয়েছে এয়ারবাস। সুইস কোম্পানি স্মার্টফ্লাইয়ার তৈরি করছে ইলেক্ট্রিক-হাইব্রিড এয়ারক্রাফট। কার্বন নিঃসরণের পাশাপাশি এটি শব্দ দূষণও কমাবে।

কোম্পানিটির এভোয়েনিকস অ্যান্ড ইউজার ইন্টারফেইসের প্রধান আলডো মন্টানারি জানান, এখনই এই প্লেনগুলো বাজারে আসবে না। পরিবেশ বাঁচাতে এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রির উপরেও চাপ আছে। ইন্ডাস্ট্রি এর প্রয়োজনীয়তা বুঝেছে। তবে এক বছরের মধ্যেই পরিবর্তন আনা সম্ভব নয়।

হ্যারিয়াট ডেইলি অবলম্বনে এজেড/ ফেব্রুয়ারি ১৭/২০২০/১৭০৭

আরও পড়ুন –

কার্বন নিঃসরণ কমাতে বিল গেটসের বিনিয়োগ

১ বিলিয়ন গাছ লাগাবে ড্রোন

*

*

আরও পড়ুন