Header Top

ফেইসবুকের ডেটিং অ্যাপ কী মন জয় করবে?

Facebook-Dating-Secret-Crush-Feature-Launch
ফেইসবুক ডেটিং অ্যাপের সিক্রেট ক্রাশ ফিচার। ছবি : ইন্টারনেট থেকে নেওয়া

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফেইসবুকের প্রতি এমনিতেই মানুষের বিশ্বাস অনেকটাই ফিকে হয়ে এসেছে। ব্যক্তিগত তথ্য যে গোপন থাকবে না তা জেনেই সবাই ফেইসবুক ব্যবহার করেন। তবে ফেইসবুকের ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সবাই অনেক সাবধানী।

এ বিষয়ে ফেইসবুকের ডেপুটি চিফ প্রাইভেসি অফিসার রব শ্যারম্যান বলেন, মানুষের আস্থা না থাকলে কোনো ফিচারই জনপ্রিয় হয় না। ডেটিং অ্যাপের ক্ষেত্রে গোঁড়া থেকেই প্রাইভেসির উপরে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

ইন্ডিয়ানার বাসিন্দা সেথ কার্টার (৩২) প্রেমিকা খুঁজতে টিন্ডার, বাম্বল ও ক্রিশ্চিয়ান মিঙ্গেল ডেটিং অ্যাপ ব্যবহার করেছেন। তার মতে, ফেইসবুক এই সেবা চালু করেছে অর্থ আয়ের জন্য। এ কারণে প্রাইভেসি রক্ষার প্রতিজ্ঞা তারা রাখবে না। কোন ধরণের মানুষকে আমি সঙ্গী হিসেবে চাই সে সংক্রান্ত তথ্য তারা বিক্রি করবে। এভাবে তারা ব্যক্তিগত জীবনের আরও গভীরে প্রবেশ করতে পারবে।

ব্যবহারকারীদের এরকম ধারণা অমূলক নয়। ব্যবহারকারীরা এতে সময় কাটালে ফেইসবুকের আয় হয়। তাই মোবাইলভিত্তিক সেবাটি ফ্রিতেই ব্যবহার করা যায়।

ইতোমধ্যে প্রাইভেসি রক্ষায় ব্যর্থ হয়ে ফেইসবুক ৫০০ বিলিয়ন ডলার জরিমানা গুনেছে। ভুয়া রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন প্রচারের ফলে তারা এখন কঠোর নজরদারির মধ্যে রয়েছে।

ডেটিং অ্যাপ জনপ্রিয় হতে শুরু করে ২০১৬ সালের দিকে। এখন বাজারে ই-হারমোনি, হিঞ্জ, দ্য লিগ, টিন্ডার ও বাম্বল ডেটিং অ্যাপের পাশাপাশি কমিউনিটিভিত্তিক অ্যাপও আছে। যেমন সমকামী, ধার্মিক, কৃষক ও বয়স্ক ব্যক্তিদের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা অ্যাপ।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে ডেটিং অ্যাপ চালু করে ফেইসবুক। প্রথম সারির ডেটিং সাইট টিন্ডার ও বাম্বলের সঙ্গে অ্যাপটির কিছু ফিচারের মিল রয়েছে। তবে ফেইসবুকের ডেটিং অ্যাপের মূল শক্তি সিক্রেট ক্র্যাশ ফিচার।

মার্ক জাকারবার্গের দাবি, ডেটিং অ্যাপটিতে ক্ষণস্থায়ী নয়, বরং দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক তৈরিতেই প্রাধান্য দিয়েছে। ফেইসবুক থেকেই ডেটিং প্রোফাইলটি তৈরি করতে হয়। তবে ফেইসবুকের মূল অ্যাপের সব তথ্য এতে থাকে না। চাইলে ইনস্টাগ্রামের ছবিও এতে যুক্ত করা যায়।

ফেইসবুকের মূল অ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে বয়স হতে হয় ১৩ বছর। তবে ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারকারীর বয়স অবশ্যই ১৮ বা তার বেশি হতে হবে। যাদের রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস সিঙ্গেল তারাই যে শুধু অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন তা নয়। সবার জন্যই ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারের সুযোগ রেখেছে ফেইসবুক।

ডেটিং অ্যাপটিতে বয়স দেখা গেলেও নাম গোপন থাকে। সম্ভাব্য ম্যাচ হিসেবে যার ছবি আসে তাতে চাইলে লাইক দেওয়া যায়। পছন্দ না হলে দেওয়া যায় ডিসলাইক। ইন্টারেস্ট বা অন্য কি ওয়ার্ডের মাধ্যমে এখানে সঙ্গী খোঁজার সুযোগ নেই। ফেইসবুক যা সাজেস্ট করবে তার মধ্যেই ব্যবহারকারীকে সন্তুষ্ট থাকতে হবে।

বন্ধু তালিকায় থাকা কারো নাম সম্ভাব্য ম্যাচ হিসেবে আসবে না। ফেইসবুক গ্রুপ ও ইভেন্ট থেকে তথ্য নিয়ে সম্ভাব্য ম্যাচ দেখানো হবে। অ্যাপটির মাধ্যমে কাউকে কোনো ছবি বা ওয়েবসাইট লিঙ্কও পাঠানো যাবে না। কিন্তু ডেটিংয়ে গেলে নিরাপত্তার জন্য বন্ধুদের সঙ্গে লোকেশনও শেয়ার করা যাবে।

সিক্রেট ক্রাশ হিসেবে মোট ৯ জনের নাম তালিকায় অ্যাড করা যাবে। এই তালিকার কেউ ডেটিং অ্যাপ কিনা বা পছন্দের তালিকায় আপনাকে রেখেছে কিনা তা অ্যাপ থেকেই জানা যাবে। দুই দিক থেকে ইতিবাচক সাড়া না এলে সব তথ্য গোপন রাখবে ফেইসবুক।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের মাত্র ২০টি দেশে চালু হয়েছে ফেইসবুক ডেটিং অ্যাপ। বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ই-মার্কেটারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে অ্যাপটি ব্যবহারকারী সংখ্যা ছিলো ১৬ কোটি।

এজেড/ ইএইচ/ ফেব্রু ১৫/২০২০/ ১২৫০

*

*

আরও পড়ুন