Techno Header Top

টয়োটা যেন নকিয়া!

টেসলার চেয়ে পিছিয়ে টয়োটা। ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টয়োটার আলোচিত আরএভি ফোর ইলেক্ট্রিক কার বাজারে এসেছে। অনেকে এটিকে টেসলার মডেল থ্রির প্রতিযোগী হিসেবে দেখছেন।

আবার অনেকে সমালোচনাও করছেন। তবে সাবেক নকিয়া কর্মকর্তা হেনরি চেসবার্গ অবশ্য মনে করছেন, টয়োটার অবস্থা ২০০৭ সালের নকিয়ার মতো।

স্মার্টফোন বিশেষজ্ঞ এ কর্মকর্তা ই-প্রযুক্তিতে এগিয়ে রাখছেন টেসলাকে।

সম্প্রতি তিনি টয়োটা আরএভি ফোর ও টেসলা মডেল থ্রি গাড়ি দুটি কিনে ব্যবহার করেন। ব্যবহারের অভিজ্ঞতা থেকে তার মনে হয়েছে, টয়োটা ইলেকট্রিক গাড়ির ব্যবসায় টেসলা থেকে অনেক পিছিয়ে আছে।

ফেব্রুয়ারিতে জনপ্রিয় ব্যবসা সাময়িকীতে একটি কলামে তিনি লেখেন২০০৭ সালে আইফোন বাজারে আসার পর আমরা আইফোনের ভেতরের সব যন্ত্রাংশ খুঁটিয়ে দেখি। এসব যন্ত্রাংশ আমাদের একই সাপ্লায়ারদের কাছ থেকে নেওয়া। তখন ভেবেছিলাম আইফোনের প্রতিযোগিতা মোকাবিলা করা তেমন কঠিন কিছু হবে না। কিন্তু বাস্তবতা ছিলো এর উল্টো।

চেসবার্গ আরও লেখেনআইফোন শুধু কয়েকটি যন্ত্রাংশের সমন্বয় নয়। বরং এটি সবগুলোর থেকে আলাদা তাদের সফটওয়্যারের জন্য। ঠিক একই বিষয়ে ভুল করছে টয়োটা।

কোম্পানিটি মনে করে শুধু বিদ্যুৎচালিত গাড়ি বানালেই হবে। বাস্তবে টয়োটার সফটওয়্যার ইন্টারফেস টেসলার সফটওয়্যার থেকে যোজন যোজন পিছিয়ে আছে।

টেসলার সফটওয়্যার অনেক ইনটুইটিভ, মানে দেখলেই বুঝতে পারা যায়। অন্যদিকে টয়োটার ইন্টারফেসে একটি সহজ কাজ করতেও অনেক কসরত করতে হয়।

তিনি মনে করেন, টয়োটার পক্ষে টেসলাকে টেক্কা দেওয়া খুবই কঠিন। তারা যেমন উন্নয়ন করার চেষ্টা করবে, তেমনি টেসলাও এগিয়ে যাবে।

এমআর/আরআর/ফেব্রুয়ারি ০৯/২০২০

আরও পড়ুন –

ইউ টার্নে ইলন মাস্ক!

টেসলার সাইবার ট্রাকের দুই লাখ অর্ডার!

এআই নিয়ে ইলন মাস্কের ধারণা ভুল

*

*

আরও পড়ুন