আয় কমছে, টানা লোকসানে ব্যাকফুটে বিটিসিএল

বিটিসিএল-এর প্রধান কার্যালয়। ছবি : ইন্টারনেট থেকে নেওয়া
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দুর্বল ব্যবস্থাপনা এবং বারবার ব্যবস্থাপনার শীর্ষ পর্যায়ে পরিবর্তন সরকারি কোম্পানিটিকে সঠিক পথে চলতে দেয়নি।

টেলিযোগাযোগ খাতে রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) এগুলোসহ আরও বেশ কিছু কারণে দীর্ঘ দিন থেকে লোকসান করছে। এতে কোম্পানিটি পিছিয়ে পড়ছে।

তবে সর্বশেষ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ২২ শতাংশ আয় কমলেও লোকসানের পরিমাণ সামান্য কমাতে পেরেছে কোম্পানিটি।

২০০৮ সালের জুলাই মাসে সরকারি সংস্থা থেকে কোম্পানি হিসেবে যাত্রা করে বিটিসিএল। এরপর থেকে গত ১১ বছরে বিভিন্ন সময়ে ২৫ জন ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

টেলিকম খাত সংশ্লিষ্টদের মতে, এটিই মূলত কোম্পানিটিকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে দেয়নি। নতুন উদ্যোগ ও উদ্যোম না থাকায় মোবাইল অপারেটরগুলোর সঙ্গে সেবা দিতে পিছিয়ে পড়ছে বিটিসিএল।

২০১৭-১৮ অর্থবছরে বিটিসিএলের আয় ছিল এক হাজার ১৪০ কোটি টাকা। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে তা নেমে এসেছে প্রায় ৮৮৭ কোটি টাকায়।

অন্যদিকে আগের অর্থবছরের লোকসান ৩৮৯ কোটি থেকে নেমে এসেছে ৩৬৮ কোটি টাকায়।

অথচ ২০০৮-০৯ অর্থ বছরেও কোম্পানিটির আয় এক হাজার ৬৮৯ কোটি টাকা ছিল। ওই বছর মুনাফাও হয়েছিল ১০৬ কোটি টাকা।

কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা বলছেন, দিন দিন টেলিকম সেবা ব্যবহারের খরচ অনেক কমে যাচ্ছে। এ কারণে তাদের আয়ও কমছে।

তবে আয় কমলেও বিটিসিএল হয়ত মুনাফা করতে পারত। তা না হওয়ার কারণ কোম্পানির বিপুল সম্পদ ও এর ব্যবস্থাপনা ব্যয়। একই সঙ্গে প্রতি বছর অবচয়ের পরিমাণ বাড়তে থাকায় তাদের লোকসানের পরিমাণ বাড়ছে বলে মনে করেন কর্মকর্তারা।

সর্বশেষ অর্থবছরে ৮৮৭ কোটি টাকা আয়ের মধ্যে প্রায় ৫৬১ কোটি টাকা তাদের অবচয় হিসাবে ধরতে হয়েছে, যা আয়ের ৫৮ শতাংশের বেশি।

এর আগের অর্থবছরে অবচয় রাখতে হয়েছিল ৫৯১ কোটি ৬১ লাখ টাকা। একইভাবে প্রত্যেক বছরে শত কোটি টাকা অবচয় হিসাবে রাখতে হচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, বছরের পর বছর ব্যবস্থাপনায় দুর্বলতা, অনিয়ম, অপ্রয়ােজনীয় সরকারি হস্তক্ষেপ, তদবিরের মাধ্যমে শীর্ষ পর্যায়ে নিয়োগ এবং বারবার ব্যবস্থাপনার শীর্ষ পর্যায়ে পরিবর্তন কোম্পানিটিকে সঠিক পথে চলতে দেয়নি।

জেডএ/আরআর/২৩ জানুয়ারি/১৪.১৯/২০২০

আরও পড়ুন – 

ট্রিপল প্লের পথে বিটিসিএল 

রবিকে ৩ হাজার কিলোমিটার ফাইবার অপটিক সংযোগ দিল বিটিসিএল 

বিটিসিএলও অ্যাপে সেবা দিতে চায়

*

*

আরও পড়ুন