গ্রামীণফোন পেলো প্রথম দেশি সিইও

গ্রামীণফোনের প্রথম দেশি সিইও ইয়াসির আজমান। ছবি : সৌজন্যে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রথমবারের মতো দেশি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পেলো মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন। অপারেটরটির বর্তমান ডেপুটি সিইও এবং সিএমও ইয়াসির আজমানকে নতুন সিইও হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ থেকে গ্রামীণফোনের পরিচালনা পর্ষদ ইয়াসির আজমানকে সিইও হিসাবে নিয়োগ দিয়েছে।

এর আগে তিনি ২০১৫ সালের জুন থেকে গ্রামীণফোনের সিএমও এবং ২০১৭ সালের মে থেকে ডেপুটি সিইও এবং সিএমও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে আজমান টেলিনর গ্রুপ এর বিতরণ এবং ই-বিজনেস বিভাগের প্রধান এবং টেলিনরের হয়ে বিভিন্ন দেশে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

আজমান বর্তমান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাইকেল ফোলির স্থলাভিসিক্ত হবেন।

গ্রামীণফোন পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান পেটার বি ফারবার্গ জানিয়েছেন, ইয়াসির আজমান গ্রামীণফোন এবং টেলিনর গ্রুপের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেই আজকের অবস্থানে এসেছেন। তিনি প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এই দায়িত্ব পালন করবেন। এটি টেলিনর এবং গ্রামীণফোনের জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। গ্রামীণফোনের ডেপুটি সিইও এবং সিএমও হিসাবে আজমান টেলিনর গ্রুপ এর সব থেকে বাণিজ্যিকভাবে সফল অপারেশন পরিচালনা করে আসছেন।  সিইও হিসেবেও তিনি চ্যালেঞ্জে সফল হবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

বর্তমান সিইও মাইকেল ফোলি ২০১৭ সালে মে মাসে গ্রামীণফোনের সিইও’র দায়িত্ব পান।

মাইকেল ফোলির নেতৃত্বে বাংলাদেশে গ্রামীণফোন মজবুত অর্থনৈতিক ভিত্তি তৈরি করেছে এবং ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি করায় তাকেও ধন্যবাদ জানান ফারবার্গ।

ইয়াসির আজমান বলেন, গ্রামীণফোনের সিইও হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের প্রস্তাব পেয়ে আমি আনন্দিত। ডিজিটাল বাংলাদেশ, সামাজিক ক্ষমতায়ন এবং গ্রাহকদের জন্য যা গুরুত্বপূর্ণ তার সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দিতে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী।

গ্রামীণফোনের উদ্ভাবনী প্রযুক্তি আর সেবার মাধ্যমে গ্রাহকদের আরও উন্নত সেবা দেবার অঙ্গীকার করেন তিনি।

ইএইচ/ জানু ১৬/ ২০২০/ ১৭০০

আরও পড়ুন –

বাধার পরও বাড়ছে জিপি-রবি 

সময়সীমা পেরোলেই জিপি-রবিতে প্রশাসক : জয়

*

*

আরও পড়ুন