Techno Header Top and Before feature image

রিআপলোডে ছবির যে পরিণতি

বার বার আপলোডে অরিজিনাল ছবির করুন হাল। ছবি : ডাইফটোগ্রাফি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ক্যামেরায় তোলা ছবি কম্পিউটার থেকে ফেইসবুক বা ইনস্টাগ্রামে আপলোড করা মাত্রই কিছু পার্থক্য তৈরি হয়।

সূক্ষ্ম এই পার্থক্যকে কেন্দ্র করেই ফেইসবুক মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রামে মজার একটি নিরীক্ষা চালিয়েছেন জ্যানিক এনট্রিমন্ট। অস্ট্রেলিয়ান এই ফটোগ্রাফার নিজের একটি ছবি তুলে ইনস্টাগ্রামে আপলোড করেছেন। ছবিটি ডাউনলোড করে আবারও আপলোড করেছেন। এভাবে একই কাজ তিনি ৩৪০ বার করেছেন।

প্রতিবার আপলোডের পর তার ছবির মান খারাপ হতে থাকে। ৮০তম বারের সময় তার চেহারার কিছু অংশ হারিয়ে যায়। শেষ বার যে ছবি তিনি আপলোড করেন তাতে তার চেহারাই উধাও হয়ে যায়। মূলত জেনারেশন লসের কারণে এমনটি ঘটে। ছবির অরিজিনাল ও পরবর্তী কপিগুলোর মধ্যে মানের যে পার্থক্য তাই জেনারেশন লস হিসেবে পরিচিত।

৩৪০তম বারের বার সেলফির যা হাল হয়। ছবি : ইনস্টাগ্রাম

জ্যানিক বলেন, নানা কারণে প্রকল্পটি গুরুত্বপূর্ণ। এটি ডিজিটাল ডেটা, অনলাইন, অফলাইন ও বিপুল সংখ্যক ছবির পরিণতি সম্পর্কে আমাদেরকে ধারণা দেয়।

এর আগে শিল্পী পিট অ্যাস্টোন ২০১৫ সালে একই নিরীক্ষা চালিয়েছিলেন। ৯০ বার আপলোড ডাউনলোডের ফলে তার ছবির মানও অনেক কমে যায়।

ডাইফটোগ্রাফি অবলম্বনে এজেড/ জানুয়ারি ১৬/২০২০/১৩২০

আরও পড়ুন –

বিলবোর্ড কি ছবি তুলে রাখছে! 

কম আলোতেও ভালো ছবি তোলার উপায়

*

*

আরও পড়ুন