একের পর এক মোবাইল কারখানা স্থাপন

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে মোবাইল কারখানা করার বেশ ব্যস্ততা দেখা যায় ২০১৯ সাল জুড়ে।

পাঁচটি কোম্পানি কারখানা স্থাপন করে বছরটিতে উৎপাদনের চলে আসে। আরও কয়েকটি কোম্পানি কারখানা করার সিদ্ধান্ত নিয়ে কার্যক্রম এগুতে শুরু করে।

বছরের মাঝামাঝি সময়ে লাভা মোবাইলের কারখানা স্থাপনকারী কোম্পানি গ্রামীণ ডিস্ট্রিবিউশন উৎপাদন শুরু করে। গাজীপুরের উম্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপরীত পাশের এলাকায় স্থাপিত লাভার কারখানা। ২৭ হাজার স্কয়ার ফিটের এই কারখানার লোকবল প্রায় আড়াই’শ। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে লাইসেন্স পায় কোম্পানিটি।

ওকে মোবাইল কারখানা টেসিসে। তারা বছরের মাঝামাঝি সময়ে পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু করলেও এর কয়েকমাস পরে বাজারে আসে।

২০১৯ সালের শুরুর দিকে কারখানা করার লাইসেন্স পায় উইনস্টারের মূল কোম্পানি আনিরা ইন্টারন্যাশনাল। উইনস্টার মোবাইলের কারখানা সোনারগাঁও রোডে। কোম্পানিটিও বছরের মাঝামাঝি সময়ে বাজারে চলে আসে।

আরও পড়ুন – দেশে মোবাইলের ৩০% গ্রে মার্কেট

বেনলি ইলেকট্রনিক এন্টারপ্রাইজ কোম্পানি করে অপোর কারখানা। গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস এলাকায় ইতোমধ্যে কারখানা স্থাপন করছে অপো। বছরের শেষ দিকে স্থানীয় কারখানায় সংযোজিত হ্যান্ডসেট তারা বাজারে ছাড়ে।

বেস্ট টাইকুন (বিডি) করছে ভিভোর কারখানা। নারায়ণগঞ্জের ভুলতায় ওই কারখানায় পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু করেছে ব্র্যান্ডটি।

এছাড়া এ বছরই দেশে কারখানা করার সিদ্ধান্ত নেয় নোকিয়া। ব্র্যান্ডটি ইতোমধ্যে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে এই কারখানা করতে কার্যক্রম এগিয়ে নিচ্ছে।

এর বাইরেও হুয়াওয়ে, শাওমিসহ কয়েকটি ব্র্যান্ড দেশে কারখানা করার সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে নেমেছে।

এডি/২০১৯/২৭ডিসে/১৬০০

*

*

আরও পড়ুন