আন্তর্জাতিক পুরস্কারের চূড়ান্ত পর্বে এটুআইয়ের উদ্যোগ

ছবি : সংগৃহীত
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অ্যাপটিক্যাল গ্লোবাল পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ডের চূড়ান্ত পর্বে গেছে দেশের দুটি উদ্যোগ।

অ্যাক্সেস টু ইনফরমেশন বা এটুআই- এর ডিজিটাল সেবা ‘কলসেন্টার ৩৩৩’ এবং উদ্ভাবনী উদ্যোগ ‘আইল্যাব’ পুরস্কারের জন্য চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিয়েছে।

অ্যাপটিক্যাল গ্লোবাল পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ আয়োজনে আটটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেবে। সেখানে ‘ডিজিটাইজিং পাবলিক সার্ভিসেস’ ক্যাটাগরিতে ‘কলসেন্টার ৩৩৩’ এবং ‘সিটিজেন-সেন্টার্ড ইনোভেশন’ ক্যাটাগরিতে ‘আইল্যাব’ মনোনীত হয়েছে।

সরকারের নতুন উদ্ভাবনী সেবা চালু এবং পুরাতন সেবা সহজিকরণের মাধ্যমে নাগরিকদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংগঠন ‘অ্যাপলিটিকাল’ দ্বিতীয়বারের মতো এ বছর এই পুরস্কার দেবে।

‘তথ্য ও সেবা সবসময়’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে এটুআই  ‘কলসেন্টার ৩৩৩’ চালু করেছে। সেখান থেকে যেকোনো নাগরিক সরকারি সেবাপ্রাপ্তির পদ্ধতি, জনপ্রতিনিধি ও সরকারি কর্মচারীদের সঙ্গে যোগাযোগের তথ্য, ইসলামিক মাসআলা-মাসায়েল, পর্যটন ও জেলা সম্পর্কিত তথ্য সম্পর্কে জানতে পারছেন।

এই কলসেন্টারের মাধ্যমে এ পর্যন্ত প্রায় ৩৫ লাখ নাগরিককে সেবা দেওয়া হয়েছে বলে জানায় এটুআই।

এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এটুআই জানায়, আইল্যাব সমাজের বৃহত্তর সমস্যাগুলো মোকাবেলার জন্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে সারাদেশের উদ্ভাবকদের উদ্ভাবনগুলো অনুসন্ধান, পরিচর্যা এবং ত্বরান্বিত করে। আইল্যাব থেকে সরাসরি সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রদানের মাধ্যমে ইতোমধ্যে ৬০টি ইনোভেশন প্রোটোটাইপকে উন্নত করা হয়েছে এবং এর মধ্যে বাণিজ্যিকীকরণ করা হয়েছে ১১টির।

এ বছর আটটি ক্যাটাগরিতে অস্ট্রেলিয়া, ইন্ডিয়া, যুক্তরাজ্য, কানাডা এবং ইন্দোনেশিয়া’সহ বিভিন্ন দেশ থেকে বিভিন্ন উদ্ভাবনী প্রকল্প প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

অবশ্য বিজয়ী হিসেবে বাংলাদেশের দুই উদ্যোগকে দেখতে হলে ভোট দিতে হবে। ভোট দেয়া যাবে ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। এই ঠিকানায় গিয়ে কিভাবে ভোট দেওয়া যাবে তা দেখতে পাবেন।

ইএইচ/ ডিসে ২৪/ ২০১৯/ ২০২০

আরও পড়ুন –

তথ্যসেবার সঙ্গে সমস্যার সমাধানও দেবে ৩৩৩ 

রোগী বহনে এটুআই ল্যাবের উদ্ভাবনী অ্যাম্বুলেন্স

*

*

আরও পড়ুন