টুটক অ্যাপে গুপ্তচরবৃত্তি করছে আরব আমিরাত

ছবি : ইন্টারনেট
Evaly in News page (Banner-2)

টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গুগলের প্লে স্টোর ও অ্যাপলের অ্যাপ স্টোরে উন্মোচনের ছয় মাসের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে আরব আমিরাত ভিত্তিক ভিডিও কলিং ও ম্যাসেজিং অ্যাপ টুটক। এবার ব্যক্তিগত তথ্য নেওয়া ও গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ উঠেছে অ্যাপটির বিরুদ্ধে।

এমন অভিযোগের পর গুগল ও অ্যাপল কর্তৃপক্ষ তাদের প্লাটফর্ম থেকে অ্যাপটি সরিয়ে নিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার প্লে স্টোর ও অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপটি সরিয়ে ফেলেছে গুগল ও অ্যাপল।

এর আগে অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যেখানে তারা অ্যাপটি দিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকারের এমন গুপ্তচরবৃত্তির খবর পায়।

ইতোমধ্যে মধ্যপ্রাচ্য, এশিয়ার বিভিন্ন দেশ, ল্যাতিন আমেরিকা, ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র ও আফ্রিকার ব্যবহারকারী বেশি রয়েছে।

টুটক কর্তৃপক্ষ অবশ্য এক বিবৃতি দিয়ে বলেছে, এমন অভিযোগ মিথ্যা। গুগল ও অ্যাপল তাদের প্লাটফর্ম থেকে অ্যাপটি কারিগরি ত্রুটির কারণে সরিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ্যাপটি ফোনে রাখলেই তা এমন গুপ্তচরবৃত্তির কাজ করবে। তাই তারা এটিকে আনইনস্টল করার পরামর্শ দিয়েছেন।

এদিকে নিউ ইয়র্ক টাইমস বলেছে, সংযুক্ত আরব আমিরাত টুটক অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের কথোপকথন, চলাফেরা এবং অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্য এমনকি কোন ছবিতে লাইক দিলো সেগুলোও সংগ্রহ করে।

গুগল প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে ফেলার আগে টুটক প্লাটফর্মটি থেকে অন্তত ৫ কোটি ডাউনলোড হয়েছে। অ্যাপ অ্যানির তথ্যমতে, গত এক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপের তালিকায় রয়েছে টুটক।

অ্যাপটি প্লাটফর্ম দুটিতে প্রকাশ করেছে আবুধাবী ভিত্তিক ইন্টেলিজেন্স ও হ্যাকিং প্রতিষ্ঠান ব্রিজ হোল্ডিং লিমিটেড। সাইবার অপরাধের অভিযোগ এনে এখন প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন বা এফবিআই তদন্ত করবে বলে জানিয়েছে।

বিবিসি লন্ডন থেকে ব্রিজ হোল্ডিং লিমিটেড, তাদের প্যারেন্ট কোম্পানি ডার্কম্যাটার ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের লন্ডন দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো মন্তব্য করতে চায়নি।

ইএইচ/ ডিসে ২৪/ ২০১৯/ ১৭৪০

*

*

আরও পড়ুন