Header Top

হুয়াওয়ের ফাইভজি প্রযুক্তি নিচ্ছে টেলিনর

ছবি : ইন্টারনেট থেকে
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : মোবাইল অপারেটর হিসেবে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে সুপরিচিত ও শীর্ষস্থানে রয়েছে টেলিনরের প্রতিষ্ঠান।

নরওয়ে ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি নিজেদের দেশেও শীর্ষ অপারেটর হিসেবে সেবা দিয়ে আসছে। এবার টেলিনরের ফাইভজি সেবা বাড়াতে তার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে চীনের প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে।

যদিও টেলিনরের সঙ্গে আগে থেকেই কাজ করছিল সুইডিস প্রতিষ্ঠান এরিকসন। তবে নতুন হিসেবে তাদের সঙ্গে যুক্ত হলো হুয়াওয়ে।

টেলিনরের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা গত শুক্রবার একটি সভা করেছেন। সেখানে তারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানা গেছে। প্রতিষ্ঠানটি আগামী চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে নেটওয়ার্ক নিয়ে আরও অনেক কাজ করতে চায় বলে জানায়।

টেলিনর গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সিইও সিগভে ব্রেক্কে সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, হুয়াওয়ের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে তারা খুব আনন্দিত।

একটি রূপান্তররের সময় যেন আমদের গ্রাহকরা কোনো ভাবেই বাজে কোনো নেটওয়ার্ক সার্ভিস না পান সেদিকে লক্ষ্য রাখা আমাদের মূল কাজ। টেলিনর বর্তমানের ফোরজি নেটওয়ার্ক এবং সেখান থেকে ফাইভজি নেটওয়ার্কে যাবার জন্য যেসব সরঞ্জাম দরকার সেগুলো বর্তমান সরবরাহকারীর পাশাপাশি হুয়াওয়ের কাছ থেকেও নেবে বলে জানান টেলিনরের পরিচালক আন্দ্রেস ক্রোকেন।

এর আগে চলতি বছরের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্র সরকার দেশটিতে হুয়াওয়ের ফাইভজি যন্ত্রপাতি দিয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করছে বলে অভিযোগ এনে কালো তালিকাভুকক্ত করেছে। কিন্তু হুয়াওয়ে সেসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

নরওয়ের ডিজিটালাইজেশন মন্ত্রী নিকোলাই অ্যাস্ট্রুপ দেশটির এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া বক্তব্যে বলেছেন, হুয়াওয়ে কিংবা এরিকসন কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেই নিরাপত্তা নিয়ে কোনো আপোস করা হবে না। আমরা সবার সরঞ্জামের উপর নজর রাখছি কেউ কোনো তথ্য পাচারের ঘটনা ঘটাচ্ছে কি না।

টেলিনরের সঙ্গে গত ১০ বছর থেকেই হুয়াওয়ে কাজ করছে। বিশেষ করে টেলিনরের বিভিন্ন দেশে টেলিকম সেবায় তারা জড়িত।

বর্তমানে টেলিনর ১০ স্থানে ফাইভজি নিয়ে হুয়াওয়ের সঙ্গে কাজ করছে। নরওয়ে ছাড়াও ডেনমার্কের কিছু এলাকা, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, থাইল্যান্ড এবং মালোয়েশিয়াতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

ইএইচ/ ডিসে ১৫/ ২০১৯/ ১৬০০

*

*

আরও পড়ুন