Header Top

ডেটা সংরক্ষণে আর বিদেশ নির্ভরতা নয় : প্রধানমন্ত্রী

ছবি : বাসস
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ডেটা সংরক্ষণের জন্য বিদেশী কারও কাছে এখন আর নির্ভরশীল হতে হবে না বলে উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের বৃহত্তম এবং বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম জাতীয় ফোর টায়ার ডেটা সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠানের বক্তব্যে তিনি এমন কথা বলেন। 

তিনি বলেন, এই জাতীয় ডেটা সেন্টার থেকে শুধু দেশের অর্থের সাশ্রয়ই হবে না, বরং এর থেকে আরও অর্থ আয় করা সম্ভব হবে। 

বৃহস্পতিবার সকালে এক ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে জাতীয় ফোর টায়ার ডেটা সেন্টারটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। 

অনুষ্ঠানের বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু যে পথ দেখিয়ে গেছেন সে পথেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। 

তিনি বলেন, এই ডেটা সেন্টার স্থাপনের মাধ্যমে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের আরও একটি ধাপে উন্নীত হলাম। ইতোমধ্যে আমরা বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করেছি।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা যে ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা করেছিলাম ২০০৯ সালে তা এখন বাস্তব। এক সময় আমি বলেছিলাম কম্পিউটারে টাইপ করা লেখা ছাড়া আমি সই করবো না। প্রত্যেক অফিসে কম্পিউটার ব্যবহারের কথা বলে দিয়েছিলাম। এখন হাতে হাতে বলতে গেলে কম্পিউটার। 

তিনি বলেন, কম্পিউটার ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় এখন দেখা দিয়েছে ডেটা সেন্টারের প্রয়োজনীয়তা। ডেটা সংরক্ষণ একান্তভাবে প্রয়োজন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সেটা দরকার হয়। 

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এনএম জিয়াউল আলম এ সময় প্রধানমন্ত্রীর অনুমতি সাপেক্ষে ডেটা সেন্টারটির উদ্বোধন কার্যক্রম পরিচালনা করেন। 

এসময় তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক উপস্থিত ছিলেন। 

২০১৫ সালের ৬ অক্টোবর ডেটা সেন্টারটির নির্মাণে একনেকে একটি প্রকল্প পাশ হয়। সরকারি অর্থে ও চীনের কারিগরি সহায়তায় নির্মিত ডেটা সেন্টারটির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয় ২০১৬ সালের ১৪ অক্টোবর।সেসময় প্রধানমন্ত্রী এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিং পিং এটির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। 

দুই লাখ বর্গ ফুটের ভবনটি ভূমিকম্প সহনীয় ও এক্সপ্লোসিভ টলারেন্ট।   

২০১৮ সালের জুন মাসে এর কাজ শেষ করার মেয়াদ ধরা হলেও তা কিছুটা সময় পিছিয়ে শেষ হয়। আর বৃহস্পতিবার থেকে এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হলো। 

ইএইচ/ নভে ২৮/ ২০১৯/ ১৫৪৪

*

*

আরও পড়ুন