যাচাই ছাড়া সামাজিক মাধ্যমে পোস্টে সতর্ক থাকার আহ্বান

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সামাজিক মাধ্যম ব্যবহার এখন খুবই সহজ হয়ে গেছে। হাতের মুঠোয় থাকা স্মার্টফোনে তাই কোনো কিছু সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার, পোস্ট করার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে।

দেশের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের দলীয় কার্যক্রমে সক্রিয় করতে এবং নিজেদের কর্মদক্ষতা বাড়াতে ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহারের উপর প্রশিক্ষণ কর্মশালা করাচ্ছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

দলটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির উদ্যোগে সোমবার খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত কর্মশালায় বক্তরা এমন আহ্বান জানান।

‘কর্মদক্ষতা বৃদ্ধিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম’ শীর্ষক ওই কর্মশালায় খুলনা ও এর আশেপাশের জেলা-উপজেলা পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।

দিনব্যাপী ওই প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সামাজিক মাধ্যমে কোন বিষয়গুলো শেয়ার করতে হবে, কোনটা শেয়ার করা বা পোস্ট করা ঠিক নয়, ধর্মীয় বিষয় পোস্ট করার ক্ষেত্রে সতর্কতা, জনপ্রিয় পোস্ট শেয়ার করার ক্ষেত্রে সেটি সঠিক কিনা তা যাচাই করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

কর্মশালার প্রশিক্ষক ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর বলেন, সবসময় চেষ্টা করতে হবে নিজেদের ইতিবাচক অর্জনগুলো তুলে ধরতে হবে। আমরা অনেকেই মনে করি অন্যের দোষ দেখালেই আমরা সেরা হবো। কিন্তু তা নয়, সবসময় সঠিক ও নির্ভুল তথ্য তুলে ধরতে হবে সামাজিক মাধ্যমে।

সামাজিক মাধ্যমে অনেক বিষয় আছে যার কারণে আমরা কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারি না। সেই লক্ষ্য পূরণ করতে দরকার সচেতনতা ও সতর্কতা। সেদিকে খেয়াল রাখার কথা বলেন তিনি।

ঢাকাসহ আট বিভাগে এই প্রশিক্ষণ কর্মশালা করছে আওয়ামী লীগ। এতে সহযোগিতা করছে আওয়ামী লীগের গবেষণা সংস্থা ‘সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন’ (সিআরআই)।

খুলনার কর্মশালাটি উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য শেখ সালাউদ্দীন জুয়েল, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কাজী সাজ্জাদ হোসেন।

আওয়ামী লীগের গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) সহযোগী সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ বলেন, আমরা সামাজিক মাধ্যমে কি করবো কি করবো না সেটা নিজের কাছে পরিষ্কার থাকতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা চাইলে সামাজিক মাধ্যম থেকেই অনেক তথ্য পেতে পারি, তথ্য অন্যকে দিতে পারি। তবে সেসব তথ্য অবশ্যই সঠিক হতে হবে। আর বিভিন্ন দিবস বা উপলক্ষ্যে আমরা সেটা নিয়ে কাজ করতে পারলে অন্যাদের বিষয়টি জানান দেওয়া সহজ হয়।

সবসময় কোনো কিছু পোস্ট, লাইক, শেয়ার করার ক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে এবং সেগুলো যেন অবশ্যই বিশ্বাসযোগ্য হয়, সঠিক হয় বলে জানান প্রশিক্ষকরা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য সচিব মো. আবদুস সবুর।

সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সভাপতি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য প্রফেসর মো. হোসেন মনসুর।

কর্মশালায় বিভিন্ন জেলা, উপজেলা আওয়ামী লীগের দুই শতাধিক কর্মী অংশ নেন।

ইএইচ/ নভে ১৮/ ২০১৯/ ১৮৩০

আরও পড়ুন –

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিরাপদ থাকবেন যেভাবে 

সামাজিক মাধ্যমে প্রতারণা বেড়েছে ৪৩% 

সামাজিক মাধ্যমের পোস্টে পশ্চিমবঙ্গে এক মাসে ৭ দাঙ্গা 

গুজব রোধে ফেইসবুকে সংবাদ যাচাই সেন্টার করেছে র‍্যাব

*

*

আরও পড়ুন