আইসিপিসি ঢাকার চ্যাম্পিয়ন বুয়েট হেলবেন্ট

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ কম্পিউটার প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা আইসিপিসির ঢাকা অঞ্চলের চ্যম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘বুয়েট বেলবেন্ট’।

শনিবার সকালে শুরু হওয়া প্রতিযোগিতাটি টানা পাঁচ ঘণ্টা চলে। সেখানে মোট ১০টি সমস্যার মধ্যে আটটি সমস্যার সমাধান করে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা।

এছাড়াও সমান আটটি সমস্যার সমাধান করে প্রথম রানার আপ হয় বুয়েটের আরেক দল ‘বুয়েট গিফটেড হিপোক্রেটিস’ দল। আর তৃতীয় স্থান অর্জন করে বিশ্ববিদ্যালয়টির আরেক দল ‘বুয়েট ডুফেনস্মিটজ ইন.’ (BUET Doofenshmirtz Inc)। দলটি সাতটি সমস্যার সমাধান করেছে। 

পুরস্কার বিরতণী অনুষ্ঠানে প্রদান অতিথি ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, এর আগে যারা আইসিপিসিতে অংশ নিয়েছিল তাদের অনেকেই ফেইসবুক, গুগল, ইউটিউবসহ বিভিন্ন মাধ্যমে কাজ করছেন। সিলিকন ভ্যালিতে গেছেন।

তিনি বলেন, আমরা চাই আমাদের এই টপ যে ব্রেন, ইয়াং সফটওয়্যার ডেভেলপার, প্রোগ্রামার তারা বিদেশেই শুধু যাবে না, তারা ফেইসবুক, গুগলের মতো উদ্যোগ দেশে থেকেই শুরু করবে।

আমাদের এখানে তেমনই একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। এর ফলে দেশেই এমন প্রোগ্রামারদের কর্মসংস্থান করা সম্ভব হবে বলে জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ও ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের উপাচার্য জামিলুর রেজা চৌধুরী, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব এনএম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মোহাম্মাদ কায়কোবাদ। সভাপতিত্ব করেন সাউথ ইস্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক মেশকাত উদ্দীন।

এবারের ঢাকা অঞ্চলের প্রতিযোগিতার আয়োজক ছিল সাউথ ইস্ট ইউনিভার্সিটি। আর ২০২০ সালের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হবে রাশিয়ার মস্কো ইউনিভার্সিটিতে।

গত বছর ঢাকা অঞ্চলের প্রতিযোগিতার আয়োজক ছিল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। সেখানে ঢাকা অঞ্চলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘সাস্ট ডেসাইফ্রাডর’। আর প্রথম রানার আপ হয়েছিল বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বা বুয়েটের দল ‘বুয়েট_ব্লাডহুন্ড’।

গত বছর ঢাকার চ্যাম্পিয়ন হয়েও এক পর্যায়ে ভিসা জটিলতায় পর্তুগালে অনুষ্ঠিত চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়ে সাস্ট ডেসাইফ্রাডর দলের সদস্যদের। পরে টেকশহরডটকম একটি প্রতিবেদন প্রকশে করে ‘এসিএম-আইসিপিসিতে অংশ নিতে পারছে না দেশের চ্যাম্পিয়নরা!‘ শিরোনামে।

প্রতিবেদন প্রকাশের পর তা সংশ্লিষ্টদের নজরে আসলে বাংলাদেশের চ্যাম্পিয়নরা যাতে ভিসা পায় সে সম্পর্কে অনেকেই কাজ করার কথা জানান এবং তা করলে অবশেষে তারা ভিসা পান। পরে দলটি পর্তুগালের পোর্ত শহরে ‘ভিসা মিলেছে, এসিএম-আইসিপিসিতে যাচ্ছে দেশের চ্যাম্পিয়নরা’ অংশ নেয় চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায়।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তি উৎযাপনে ২০২১ সালের আইসিপিসি বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে। তখন ঢাকা বিশ্বের নামকরা সব বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোগ্রামিং দলের আগমনে মুখরিত হবে।

এই আয়োজনের জন্য জাতীয় অধ্যাপক ও ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের উপাচার্য জামিলুর রেজা চৌধুরীকে নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছে।  আয়োজনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক থাকবে বাংলাদেশ সরকার।

সম্পূর্ণ ফলাফল জানা যাবে এই ঠিকানা থেকে। 

ইএইচ/ নভে ১৭/ ২০১৯/ ১০০৬

*

*