গুগল সার্চে দক্ষ হতে চাইলে

Google-AI-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আমরা যখন গুগলে কোনো তথ্য খুঁজি তখন সাধারণত সে সম্পর্কিত কোনো শব্দ বা শব্দগুচ্ছ দিয়ে সার্চ করি।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেসবের ফলাফলে হাজার হাজার সম্পর্কিত তথ্য আমাদের সামনে হাজির করে জায়ান্টটি।  কিন্তু ঠিক কোন তথ্যটি দরকার তা বেছে নিতেই ঘাম ছুটে যায়।

সামান্য কিছু টেকনিক অবলম্বন করে খুব সহজেই গুগলে তথ্য খোঁজার দক্ষতা বাড়ানো যায়, নিজেকে করে তোলা যায় দক্ষ।

প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বলছে, ৯৬ শতাংশ ব্যক্তি জানে না গুগলে ঠিক কত উপায়ে প্রয়োজনীয় তথ্যের খোঁজ করা যায়।

কেউ যদি তার সার্চে দক্ষতা বাড়াতে চান তাহলে কয়েকটি টেকনিক জেনে রাখলে খুব সহজেই তথ্য পাওয়া যাবে।

ইউনিক ও নির্দিষ্ট টার্ম ব্যবহার

আমরা সাধারণত কোনো তথ্য গুগলে খুঁজতে গেলে একেবারে জনপ্রিয় শব্দ বা শব্দগুচ্ছ দিয়ে সেটি সার্চ করি।  তখন দেখা যায়, হাজার হাজার বা লাখ লাখ ওই সম্পর্কিত তথ্য চোখের সামনে হাজির হয়।  আপনি যদি ‘ব্লু  ডলফিন’ লিখে সার্চ করেন তাহলে কমপক্ষে ২৪ লাখ ৪০ হাজার রেজাল্ট সামনে এসে হাজির হবে।   অথচ আপনার যে তথ্যটি আসলেই প্রয়োজন সেটি পাচ্ছেন না।  এসব ক্ষেত্রে ইউনিক ও নির্দিষ্ট টার্ম ব্যবহারে সঠিক তথ্যটি পাওয়া সম্ভব।

(-) মাইনাস চিহ্ন দিয়ে সার্চ

কখনো কি চিন্তা করেছেন, একটি চিহ্ন আপনার সার্চের দক্ষতা বাড়িয়ে দিতে পারে? শুধু সার্চের দক্ষতা নয়, বরং সেই সম্পর্কির ফলাফলেও আমূল পরিবর্তন এনে সঠিক ফলাফল আপনার চোখের সামনে এনে দিতে পারে এই মাইনাস চিহ্নটি।  যেমন, আপনি সাধারণভাবে  caterpillar শব্দটি সার্চ করলে যে ফলাফল পাবেন, তার সঙ্গে যদি  Caterpillar –Inc সার্চ করেন তাহলে সেই ফলাফল আরও সুনির্দিষ্ট হবে।

হয় এটা, নয় ওটা

আমরা অনেক তথ্য সার্চের চেষ্টা করি যেগুলোর ক্ষেত্রে খুব নিশ্চিতভাবে কি-ওয়ার্ড বলতে পারি না। মানে অনেকটা দ্বিধাবিভক্ত অবস্থা থেকে এসব তথ্য বা কোনো নাম সার্চ দিয়ে থাকি। এটা কোনো সমস্যা নয়। খুব সহজে সেগুলোর প্রয়োজনীয় বিকল্প খুঁজে পেতে কিছু সিম্বল বা চিহ্ন দিয়ে খোঁজ করা যায়। সেক্ষেত্রে উদ্ধৃতি চিহ্ন (“”) ব্যবহার করে সার্চ দেওয়া যায়।উদ্ধৃতি চিহ্নের পাশাপাশি ‘অথবা’ বা ইংরেজিতে or বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করলে সার্চের ফলাফল আপনার অধীনেই যাবে।

প্রতিশব্দ ব্যবহার

প্রায় প্রতিটি ভাষার জন্যই শব্দ ভাণ্ডার পরিপূর্ণ হয়েছে প্রতিশব্দের কারণে। ইংরেজিও বেলাতেও এটি প্রযোজ্য। তাই অনলাইনে কোনো কিছু খুঁজতে গেলে প্রতিশব্দ একটি ভালো উপায় হতে পারে।এ কারণে গুগলে কোনো কিছু প্রথমবারে খুঁজে না পেলে, তখন সেখানে এমন প্রতিশব্দ দিয়ে খুঁজলে সহজে পাওয়া যাবে।এ ক্ষেত্রে অবশ্য শব্দটি লিখে (~)ব্রাকেটের ভিতরের এমন চিহ্ন ব্যবহার করলে তা দ্রুত পাওয়া সম্ভব। যেমন : “healthy ~food”.

ওয়েবসাইট ধরে খোঁজা

আমরা অনেকেই আছি ইন্টারনেট ঘাঁটতে ঘাঁটতে কোনো ওয়েবসাইটে হয়তো কখনো মজার কোনো প্রবন্ধ বা নিবন্ধ চোখে পড়ে। পরে সেটি আপনার বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে চাইলেন। তখন সহজে ও খুব দ্রুততম সময়ে সেটি পেতে চাইলে নিচের টিপস ব্যবহার করতে পারবেন।এ জন্য আপনাকে সার্চ অপশনে গিয়ে ওয়েবসাইটের নাম এবং তার সঙ্গে ওই প্রবন্ধ বা নিবন্ধের কোনো মূল শব্দ যোগ করলে খুব দ্রুত এবং সরাসরি সেটা পাওয়া সম্ভব।

তারকা চিহ্ন দিয়ে সার্চ

অনেক সময় স্মৃতি আপনার সাথে প্রতারণা করে বসে। সহজ একটি বিষয় সহজেই মনে করতে পারে না। তখন দেখা যায় কোনো একটি শব্দ বা শব্দগুচ্ছ দিয়ে সার্চ করলেই হয়তো যা চাওয়া হচ্ছে, সেটি পাওয়া সম্ভব।অথচ সেটা মনে করতে না পারায় তাৎক্ষণিকভাবে প্রয়োজন মেটানো যায় না। এসব ক্ষেত্রে ওই শব্দ বা শব্দগুচ্ছের স্থানে একটি তারকা চিহ্ন দিয়ে সার্চ দিলে তা সহজেই পাওয়া যেতে পারে।

সময়কাল ধরে

ইতিহাসের অনেক কিছু্‌ প্রতিনিয়ত প্রয়োজন হয়। অনেক সময় দেখা যায় আমাদের এমন কিছু দরকার পড়ে যেগুলো কোনো নির্দিষ্ট সময়কালে ঘটেছে।এ ক্ষেত্রে সার্চের প্রশ্ন হিসেবে সেই সময়কাল উল্লেখ করা যেতে পারে। তখন দুটি সময়কালের মাঝে তিনটি ডট চিহ্ন দিতে হবে। যেমন : ১৮৯৯…১৯২০।

ইউআরএল বা টাইটেল দিয়ে

কোন আর্টিকাল খুঁজে পেতে চাইলে সেটির টাইটেল বা ওয়েব ঠিকানা দিয়েও সার্চ করা যেতে পারে।তবে সার্চের আগে সেই আর্টিকেলের টাইটেল ও ইউআরএলে কোনো স্পেস রাখা যাবে না এবং মাঝে একটি কোলন চিহ্ন দিতে হবে। যেমন : intitle:husky

একই মতো ওয়েবসাইট দিয়ে

ওয়েবসাইটে ওই নামের সঙ্গে মিল আছে এমন কোনো সাইট খুঁজতে ‘রিলেটেড’ লিখে কোলন ব্যবহার করা যেতে পারে।এ ক্ষেত্রে যে ধরনের সাইট খুঁজতে চান- সেটার নাম প্রবেশ করান। দেখবেন তা আপনার চোখের সামনে চলে এসেছে। যেমন : Related:nike.com। তবে এক্ষেত্রে কোনো শব্দের মাঝেই স্পেস দেওয়া যাবে না।

শব্দগুচ্ছ দিয়ে সার্চ

কোনো কিছু সার্চ করতে গিয়ে কোনো কোটেশন মার্ক ছাড়া শুধু শব্দগুচ্ছ দিয়ে সার্চ দিলে তা খুব সহজেই এবং কার্যকরভাবে পাওয়া যায়। এভাবে সার্চ দিলে রিলেটেড অনেক কিছুই পাওয়া যাবে। কিন্তু সেসব শব্দগুচ্ছে যদি কোটেশন মার্ক বা কোটেশন চিহ্ন দেওয়া হয় তবে শুধু ওই একটিই দেখাবে।এভাবে কোনো গান বা কবিতার একটি লাইন থেকেই পুরোটা খুঁজে বের করা সম্ভব হয়।

ইএইচ/ নভে ১৫/২০১৯/ ১০২০

*

*

আরও পড়ুন