ইক্যাবের পাঁচ বছর, সামনে পরিকল্পনা অনেক

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের সংগঠন হিসেবে পাঁচ বছর পার করেছে ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বা ইক্যাব।

গত শুক্রবার ছয় বছরে পা দিয়েছে ইক্যাব। এই সময়ে এক হাজার সদস্যের মাইলফলকে পা দিয়েছে সংগঠনটি। 

শনিবার ইক্যাব পাঁচ বছর পূর্তি ও এক হাজার সদস্য হওয়ার বিষয়টি উদযাপন করে।

এর আগে সংগঠনটির মহাসচিব ও ইক্যাবের সহ-প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল ওয়াহেদ তমাল বলেন, যখন সংগঠনটির পরিকল্পনা করা হয় তখন দেশে একেবারেই হাতেগোনা কয়েকটি ই-কমার্স সাইট কাজ করছিল। আমরা বুঝতে পারলাম এর পরিমাণ খুব দ্রুতই বাড়বে। 

তিনি জানান, প্রথম সভাপতি হিসেবে ইক্যাবের দায়িত্ব নেন রাজিব আহমেদ। তিনি সংগঠনটিকে দাঁড় করিয়েছেন। দিন-রাত কাজ করেছেন ই-কমার্স ইকোসিস্টেমটাকে ইক্যাবের আওতায় আনা। 

তমাল জানান, একটা সময় এর ডেলিভারি ছিলো হাতে গোনা। কয়েক’শ ডেলিভারি ছিল। আর এখন প্রতিদিন ই-কমার্স খাতে ডেলিভারি ৪০ হাজারের বেশি। টে

টেকশহরের অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসে আলোচনায় তিনি জানান, এখন কম করে ই-কমার্স সাইটের সংখ্যা ২ হাজারের ওপর। এর বাইরে ফেইসবুক ভিত্তিক আরও ৫০ হাজারের বেশি ব্যবসায়ী ব্যবসা করছেন।

ই-কমার্স খাতের সুবিধা, অসুবিধা, গ্রাহকের ভোগান্তি, তা সমাধানে কাজ করে ইক্যাব। এছাড়াও সংগঠনটি ই-কমার্স নীতিমালা প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।  

তমাল জানান, একটা নীতিমালা তৈরি হয়েছে। এটা ভালো দিক। এবার আমরা এর আরও সূক্ষ্ম আলোচনা করছি এটিকে কিভাবে আরও সমৃদ্ধ করা যায় তা নিয়ে। 

গত আড়াই বছর ধরে বাংলাদেশ পোস্ট অফিসের মাধ্যমে ই-কমার্স ব্যবসায়িরা যাতে দেশের সব স্থানে পণ্য পৌঁছে দেয়া যায়। এই ধারণা থেকে ই-পোস্ট নামের সেবার মাধ্যমে ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে পণ্য পৌঁছে দিতে পারছে। 

সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সদস্যদের প্রশিক্ষণ  দিয়েছে ইক্যাব।

দেশে যে ৭০ লাখ ব্যবসায়ী রয়েছেন তাদেরকে এর আওতায় আনার পরিকল্পনার কথাও জানান তমাল।   

শনিবার পাঁচ বছর পূর্তির আনুষ্ঠানিক আয়োজনে অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ইক্যাব উপদেষ্টা ও সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, বাংলাদেশ কম্পিটিশন কমিশন চেয়ারপার্সন মফিজুল ইসলাম, সাবেক সচিব ও ইক্যাব উপদেষ্টা নজরুল ইসলাম খান আরও অনেকেই। 

ইক্যাব সভাপতি শমী কায়সারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের মহাসচিব আব্দুল ওয়াহেদ তমাল।

ইএইচ/ নভে১০/ ১৩৫০

*

*

আরও পড়ুন