কুয়েতে দাস কেনাবেচার অনলাইন, অ্যাপ

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : কুয়েতে গৃহকর্মীদের দাস হিসেবে কেনাবেচার জন্য অনলাইন ও মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারের তথ্য পাওয়া গেছে।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি তাদের এক অনুসন্ধানে এমন খবর সামনে আনলে দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা এ সম্পর্কে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবে।

গুগল ও অ্যাপলের অ্যাপের মাধ্যম ছাড়াও ফেইসবুকের মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমেও দেশটিতে দাস কেনাবেচা হয় বলে জানা গেছে।

যখন কোনো গৃহকর্মীকে আরেকজনের কাছে বিক্রি করা বা হস্তান্তর করা হয় তখন ‘মেইড ফর ট্রান্সফার’ এবং ‘মেইড ফর সেল’ হ্যাশট্যাগ দিয়ে অনলাইনে দেওয়া হয়।

তবে দেশটির কর্তৃপক্ষ বলেছে, ইতোমধ্যে অনলাইন থেকে এমন বিজ্ঞাপন সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছে তারা। এমনকি যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের মুচলেকা দিয়ে জানাতে হবে তারা ভবিষ্যতে আর এমন কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত হবেন না।

সংবাদ মাধ্যমটি তাদের অনুসন্ধানে দেখেছে, এসব গৃহকর্মীরা সাধারণত বাইরে চলাচলের অনুমতি পায় না। তাদের কাজের বাইরে বলতে গেলে এক ধরনের বন্দি জীবন কাটাতে হয়। কিন্তু অনলাইনে তাদের হাজার হাজার ছবি ছড়িয়ে রয়েছে। যেখানে তারে ছবির পাশে তাদের বিক্রির দাম লেখা রয়েছে।

গৃহকর্মীদের মাত্র কয়েক হাজার ডলারে বিক্রি করে দেয় একটি চক্র। যারা কুয়েতে পুরো ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করে।

অনেক সামাজিক মাধ্যম বিশেষ করে ইনস্টাগ্রামের ওসব গৃহকর্মীর ছবি দিয়ে হ্যাশট্যাগ দেওয়া হয়। এরপর সেটি পছন্দ হলে ব্যক্তিগত ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে অন্য সব কথাবার্তা এগিয়ে নিয়ে বিক্রি করা হয়।

এমনকি অবস্থা এমন একটা পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, দেশটিতে এখন ই-কমার্স সাইট চালু হয়েছে এমন গৃহকর্মীদের দাস হিসেবে কেনাবেচার জন্য।

জাতিসংঘের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, যদি অ্যাপল, গুগলের মতো প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এমন কাজে জড়িত থাকে তবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

অবশ্য এমন ঘটনার পর প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো জানিয়েছে, তারা তাদের ডেভেলপারদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেবে।

দেশটিতে প্রতি ১০টি বাড়ির অন্তত ৯টিতেই গৃহকর্মী কাজ করেন যারা বিভিন্ন নিম্ন আয়ের দেশ থেকে যাওয়া। আর যেসব গৃহকর্মী দেশটিতে যায় তাদের অনেকেই পাচার হয়ে দেশটিতে গেছে বলেও জানানো হয়েছে।

বিবিসি অবলম্বনে ইএইচ/ নভে০৩/ ২০১৯/ ১৪৫০

*

*

আরও পড়ুন