থ্রিজি সংযোগ কমেছে ৮%

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : শুধু কথা বলার কাজে ব্যবহার হয় এমন সিমের সংখ্যা কমার কথা থাকলেও ইদানিং তা একটু বেড়েই গেছে।

ইন্টারনেটের সহজলভ্যতাসহ স্মার্টফোনের বিকাশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বাড়ছে। দ্রুত গতির ইন্টারনেট ফোরজি চালু হওয়ার পর টেলিযোগাযোগ খাত সংশ্লিষ্টরা মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার আও বাড়বে বলেই ধারণা করেছেন।

টুজি থেকে পরের দুই প্রযুক্তিতে সবাই স্থানান্তরিত হবেন-এমনটাই ভাবা হচ্ছিল। তবে গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের চিত্র বলছে ভিন্ন কথা।

দেশে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ফোরজি চালু হয়। এর পর থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত ১৬ মাসে কার্যকর থ্রিজি সংযোগ ৭ দশমিক ৯৯ শতাংশ কমেছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রকাশিত আর্থিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

থ্রিজি’র কার্যকর সংযোগ গত জুন মাস শেষে দাঁড়িয়েছে ছয় কোটি ১৬ লাখ ৬০ হাজার। ফোরজি চালু হওয়ার সময় যা ছিল ছয় কোটি ৬৫ লাখ ৯০ হাজার।

মূলত থ্রিজি গ্রাহকদের একটি বড় অংশই ফোরজিতে চলে গেছেন। জুন পর্যন্ত ফোরজির কার্যকর সংযোগ দুই কোটি পেরিয়ে গেছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের বার্ষিক প্রতিবেদনের বলছে, ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে প্রায় প্রতি মাসেই থি্রজির সংযোগ কমেছে। মাঝখানে দু’-এক মাস পরিস্থিতি কিছুটা ভিন্ন হলেও সার্বিক অবস্থা খুব একটা ভালো হয়নি।

এ দিকে থ্রিজি ও ফোরজি মিলিয়ে সাড়ে আট কোটির কিছু বেশি দ্রুত গতির মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করলেও টুজিতে ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন এমন সংযোগও আছে এক কোটির কিছু বেশি।

এর বাইরে আরও সাত কোটি কার্যকর মোবাইল সিম বাজারে আছে যেগুলোতে কোনো ধরণের ইন্টারনেট সংযোগই নেই।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নগর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামে ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক থাকায় মোবাইল সিমে ডেটা ব্যবহার আরও বাড়ার কথা। ডিজিটাল কার্যক্রম বেড়ে যাওয়ায় ইন্টারনেট ব্যবহার ছাড়া সিমের সংখ্যা কমার কথা থাকলেও বাস্তব পরিস্থিতি ঠিক উল্টো।

জেডএ/আরআর/ ২৯ অক্টােবর/২০১৯

*

*

আরও পড়ুন