বিবিসি এখন ডার্ক ওয়েবে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিভিন্ন রাষ্ট্রের ইন্টারনেট সেন্সর নীতিমালাকে এড়িয়ে সবার কাছে সংবাদ পৌঁছে দিতে এবার ‘ডার্ক ওয়েব কপি’ তৈরি করেছে বিবিসি।

এখন থেকে যেকোনো ভিপিএনের মতো ব্রাউজার ব্যবহার করে ডার্ক ওয়েবে বিবিসির সংবাদ পাঠ করা যাবে।

বর্তমানে চীন, ইরান, ভিয়েতনামের মতো দেশগুলোর সংবাদ সেন্সর নীতিমালার কারণে বিবিসির খবর দেখতে পারে না।

এখন টর ব্রাউজারের মাধ্যমে ভিজিট করা যাবে ওই কপি সাইটটি। ভিজিটরদের সুবিধার্থে শুধু টর ব্রাউজারেই ব্যবহার করা যাবে এমন লিংকও দেওয়া হয়েছে এ বিষয়ে তৈরি করা বিবিসির প্রতিবেদনে।

টর ব্রাউজার ব্যবহারকারীর অবস্থানগত তথ্য, ব্রাউজিং ডেটা এবং পরিচয় প্রকাশ না করে ইন্টারনেটে গোপনীয়তার নিশ্চয়তা দেয়।

ব্যবহারকারীকে ট্র্যাক করা যায় না বলে দ্রুতই এই ব্রাউজারটি ডার্ক ওয়েবের সাইট ভিজিট করার কাজেও জনপ্রিয় এখন। ডার্ক ওয়েব বলতে ইন্টারনেটের এমন অংশকে বুঝায় যা সাধারণ ব্রাউজারের সাহায্যে নাগাল পাওয়া সম্ভব হয় না। অনেক ক্ষেত্রেই ডার্ক ওয়েবকে প্রচলিত আইন সমর্থন করে না এমন কর্মকাণ্ডসংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটের সমার্থক মনে করা হয়। ডার্ক ওয়েব ব্রাউজ করা বেআইনী নয় কিন্তু ডার্ক ওয়েবে অনেক বেআইনী পণ্য ও তথ্যের নাগাল পাওয়া সম্ভব।

ডার্ক ওয়েবে এখন ব্যবহারকারীরা চাইলে বিবিসির সংবাদ ফার্সী, আরবী, রুশসহ আরও কিছু ভাষায় পড়তে পারবেন। তবে, সাইটটিতে থাকছে না বিবিসির আইপ্লেয়ার। এমনকি যুক্তরাজ্যের জন্য তৈরি কোনো কনটেন্টও থাকবে না সেখানে।

বিবিসি বলছে, যুক্তরাজ্যের সম্প্রচার নীতিমালার কারণেই সাইটে ওই ধরনের কনটেন্ট না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

বিভিন্ন দেশ নানা সময়ে বিবিসির সাইট বন্ধ করে দিয়েছিল। ভবিষ্যতেও এমন হতে পারে। তাই বিবিসির পাঠকরা যেন সেসব থেকে বিচ্যুত না হয় সে কারণেই ডার্ক ওয়েবে নিজেরে নাম লিখিয়েছে বলে বিবৃতিতে জানায় বিবিসি।

বিবিসি অবলম্বনে ইএইচ/ অক্টো ২৪/ ২০১৯/ ২১০০

*

*

আরও পড়ুন