এমএনপির এক বছর : ৭ লাখের ৫ লাখই রবিতে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর :  নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর পরিবর্তন বা এমএনপির সেবা যারা নিয়েছেন তাদের প্রায় ৮০ শতাংশ চলে এসেছেন রবিতে।

বিটিআরসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর দেশে এমএনপি চালুর পর ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর শেষে এমএনপি সেবা নিতে সফল হয়েছেন মোট ৬ লাখ ৯০ হাজার ৫৫০ জন। এরমধ্যে ৪ লাখ ৯৬ হাজার ১৬ জনই অন্য অপারেটর হতে রবিতে এসেছেন।

এই সময়ে এনএনপি সেবার নেয়ার চেষ্টা করেও সফল হননি ২ লাখ ৫৬ হাজার ৬৩৩ জন গ্রাহক। সেখানেও ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৬৫ জন্য গ্রাহক ছিলেন যারা রবিতে আসতে চেয়েছিলেন।

রবি আজিয়াটা লিমিটেডের চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম বলেন, এমএনপি নিয়ে বিটিআরসির প্রকাশিত প্রতিবেদন প্রমাণ করে, রবি এখন দেশের সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত ডিজিটাল ব্র্যান্ড। যদিও নানা কারিগরি জটিলতায় এমএনপির মাধ্যমে রবি নেটওয়ার্কে আসতে ইচ্ছুক ৫০ শতাংশের বেশি গ্রাহকের আবেদন গত এক বছরে সফল হয়নি।

তিনি বলেন, বিশেষ করে করপোরেট গ্রাহকেরা এমএনপির মাধ্যমে অপারেটর পরিবর্তনে অনেক ক্ষেত্রেই হয়রানিতে পড়ছেন। যে সব কারণে গ্রাহকেরা এমএনপি সেবা নিতে পারছেন না সেগুলো দূর করতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা ও এমএনপি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান একটু সচেষ্ট হলে এমএনপি সেবা আরও সফল হবে।

এই সময়ে গ্রামীণফোনে এমএনপিতে এসেছে ১ লাখ ২১ হাজার ৫৭৯ জন গ্রাহক। তাদের এখানে আসতে চেয়েও পারেনি ৫৮ হাজার ৭৩৯ জন।

বাংলালিংক পেয়েছে ৬৮ হাজার ৫২৮ জন, এই অপারেটরে আসতে চেয়ে পারেননি ২৮ হাজার ১৯০ জন।

সরকারি অপারেটর টেলিটকে এসেছেন মাত্র ৪ হাজার ৪২৭ জন। তাদের কাছে আসতে চেয়েও পারেননি ১ হাজার ১৩৯ জন গ্রাহক।

এডি/২০১৯/অক্টো১৪/১৫২০

*

*

আরও পড়ুন