অ্যান্ড্রয়েডের দখলে ৮৫% ডিভাইস

ছবি : অ্যান্ড্রয়েড ডটকম
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বিশ্বের মোট স্মার্ট ডিভাইসের অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে গুগলের অ্রান্ড্রয়েড।

বর্তমানে বিশ্বের মোট স্মার্ট ডিভাইসের মধ্যে ৮৫ দশমিক ২৩ শতাংশই এখন অ্যান্ড্রয়েডের দখলে।

অপারেটিং সিস্টেমটি ২০০৮ সালে যাত্রার পর থেকে কখনোই পিছনে ফিরে তাকায়নি। ২০১০ সালের শেষ প্রান্তিকে তখনকার শীর্ষ ও জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম সিমবিয়ানকে টপকে শীর্ষস্থানে ওঠে অ্যান্ড্রয়েড। এরপর শুধুই বাজার দখলের লড়াই।

এরপর ধীরে ধীরে বাজার বাড়িয়েছে গুগলের এই ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেমটি। চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের যে হিসাব তাতে প্রতিষ্ঠানটি এখন শীর্ষস্থানে রয়েছে।

এর পরই অপারেটিং সিস্টেমের বাজার দখল রেখেছে মার্কিন আরেক প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। তাদের কবজায় এখন বাজারের ১০ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

২০০৬ সালে আইওএস অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে হাজির হয় অ্যাপল। এর অল্প কিছুদিনের মধ্যেই প্রতিষ্ঠানটি বাজারের বড় একটি অংশ দখলে নেয়।

২০১৪ সালের দিকে বলতে গেলে সিমবিয়ান অপারেটিং সিস্টেমের যুগ শেষ হয়। এরপর মাইক্রোসফট মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম আনলে সেটি কিছুটা সময় জনপ্রিয হতে শুরু করতেই আবার অনেকটা ধপাস করে পড়ে যায়। সেসময় এক সময়ের শীর্ষ মোবাইল ব্র্র্যান্ড নকিয়া সিমবিয়ান ছেড়ে মাইক্রোসফট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার শুরু করে জনপ্রিয়তা হারায়।

নকিয়া আবার বাজারে ফিরে এসে তাদের স্মার্টফোনে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম দেয়। আর ফিচার ফোনে দিতে শুরু করে কাইওএস। বর্তমানে কাইওএস ৪ দশমিক ১৩ শতাংশ শেয়ার দখল করে আছে।

অন্যদিকে জনপ্রিয়তা হারানো মাইক্রোসফটের মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমটি ব্যবহার করছে মাত্র শুন্য দশমিক ০১ শতাংশ।

১৯৯৯ সালে অবশ্য শীর্ষ অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে জনপ্রিয় ছিল প্লামওএস। তখন প্রতিষ্ঠানটি অপারেটিং সিস্টেমের বাজার নিয়ন্ত্রণ করতো। যা মোট বাজারের ৭৩ দশমিক ৯৪ শতাংশই দখল করে ছিল।

গত কয়েক বছর থেকেই গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম শীর্ষে অবস্থান করছে। অবশ্য নতুন আরও একটি অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে এসেছে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। হারমনি অপারেটিং সিস্টেমটি এখনো মোবাইল ফোনে ব্যবহার না করলেও প্রতিষ্ঠানটি তাদের স্মার্টওয়াচ এবং স্মার্ট টেলিভিশনে ইতোমধ্যে দিয়েছে।

ইএইচ/ অক্টো১৪/ ২০১৯/ ১২৩৫

*

*

আরও পড়ুন