মানব সম্পদের অফুরান শক্তি কাজে লাগাবে বাংলাদেশ : পলক

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের তরুণদের মেধাকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবার কথা বলেছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

তিনি বলেন, আমাদের কিছু ইউনিক বিষয় রয়েছে, তা হচ্ছে তরুণদের সৃজনশীলতা। এখন বিগডেটা, এআই, মেশিন লার্নিং সবই করতে পারে। যেটা শুরু হয়েছে বিশ্বজুড়ে। কিন্তু এসব কিছু থাকলেও সেগুলোর সৃজনশীলতা নেই। শুধু মানুষেরই সৃজনশীলতা রয়েছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সেই সৃজনশীলতাকেই কাজে লাগাচ্ছে বাংলাদেশ। সরকার এবং বেসরকারি পর্যায়ে তরুণদের সেই সৃজনশীলতা বিকাশে কাজ করে যাচ্ছে।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত বেসিস আইসিটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন পলক।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালে যখন আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচিত হয়ে ক্ষমতায় আসে তখন ডিজিটাল ভিশন ঘোষণা করা হয়। যাতে বলা হয়েছিল মানুষের জীবনমান উন্নত করতে দেশকে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করা হবে।

তখন থেকে বলা হয়েছে, দেশকে এগিয়ে নিতে সরকারি-বেসরকারি খাতের একই সঙ্গে চলতে হবে। সেটাই করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ডিজিটাল বাংলাদেশের যে চারটি পিলার গড়ে তোলা হয়েছে সেটা করা হচ্ছে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান মিলিয়েই বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা যে মধ্যম আয়ের দেশ হবার পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছি, সেখানে আমরা মেধার খনি নিয়ে এগোচ্ছি।

আমাদের যে তরুণরা, তাদের হাত ধরেই এই দেশ এগোবে বলে জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের যে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে আয় আসে তার একটা অংশ আসে সফটওয়্যার খাত থেকে। বর্তমানে বিশ্বের ১৬০টি দেশে দেশের অন্তত ১২০টির মতো প্রতিষ্ঠান সফটওয়্যার রপ্তানি করছে।

বেসিসের সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর কারণেই দেশের তথ্যপ্রযুক্তির রপ্তানি আয় এক বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে গেছে জানিয়ে তিনি আশা করেন, এই আয় খুব অল্প সময়ে পাঁচ বিলিয়ন ডলার ছাড়াবে।

এবারের বেসিস ন্যাশনাল আইসিটি অ্যাওয়ার্ডে ৩৫ ক্যাটেগরিতে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। পুরস্কারের জন্য বেসিসে প্রকল্প জমা পড়েছিল ১১৭৫টি। সেখান থেকে বিচারকদের রায়ে ৬৯টিকে উদ্যোগকে চূড়ান্ত করা হয়েছে। যাদের মধ্যে ২৯টিকে চ্যাম্পিয়ন ও অন্যান্যগুলো রানারআপ হয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী মো. হাছান মাহমুদ, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, সংসদ সদস্য ড. জাকিয়া সুলতানা লিপি, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীরসহ আরও অনেকেই।

ইএইচ/ অক্টো১২/ ২০১৯/ ২০১৩

*

*

আরও পড়ুন