সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিরাপদ থাকবেন যেভাবে

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আমাদের প্রত্যেকেরই বিভিন্ন ধরনের সামাজিক মাধ্যম অ্যাকাউন্ট রয়েছে।

বিগত কয়েক বছরে বিশ্বব্যাপী সামাজিক যোগযোগ ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে উল্লেখযোগ্য হারে, বাংলাদেশেও পিছিয়ে নেই এক্ষেত্রে।

ফেইসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটার, ইনস্টাগ্রামসহ নানান ধরনের সোশ্যাল সাইটে আমাদের পদচারণা চোখের পড়ার মতো। সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে একজন মানুষের প্রতিফলন স্বরূপ। বর্তমানে অনেক চাকরির আবেদনে সিভির পরিবর্তে চাওয়া হয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টেরর খুঁটিনাটি। এমনকি বর্তমানে মার্কিন ভিসা পেতে চাইলেও দিতে হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার তথ্য। 

সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে গেলে ব্যবহারকারীর ভোগান্তির শেষ থাকে না। এতে সামাজিকভাবে হেয় হবার পাশাপাশি থাকে সংবেদনশীল তথ্য চুরির ভয়।

এই প্রতিবেদনে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিরাপদ থাকার কিছু টিপস তুলে ধরা হলো।

অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বাড়ানো  

সামাজিক মাধ্যম হ্যাক ঠেকাতে অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা ব্যবস্থা শক্তিশালী করা জরুরী। এজন্য কিছু টিপস অনুসরণ করা যেতে পারে-

  • সহজে অনুমান করা যাবে না এমন ধরনের পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে। এজন্য আকারে কিছুটা বড় নম্বর, বর্ন ও সিম্বল মিলিয়ে পাসওয়ার্ড নির্বাচন করতে হবে। পাসওয়ার্ডের গোপনীয়তা নিশ্চিত করতে হবে, কাউকে তা জানানো যাবে না বা কোথাও শেয়ার করা হতে বিরত থাকতে হবে।
  • লগ-ইন এর জন্য টু-ফ্যাক্টর অথেনটেকেশন ফিচারটি ব্যবহার করতে হবে। এই ফিচার চালু থাকলে নতুন কোনো ডিভাইস থেকে লগ ইনের সময় পাসওয়ার্ডের পাশাপাশি অ্যাকাউন্টে যুক্ত মোবাইল নম্বরে আসা ওয়ান-টাইম পাসওয়ার্ড (ওটিপি) প্রদান করতে হয়। ফলে আইডির নিরাপত্তা বেড়ে যায়। 
  • রিকোভারি অপশনে মোবাইল নম্বরের পরিবর্তে ইমেইল ঠিকানা ব্যবহার করতে হবে। এতে করে হুট করে অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে গেলেও মেইলে তার নোটিফিকেশন চলে আসবে এবং চাইলে দ্রুততম সময়ে তা ঠেকানোরও সুযোগ পাওয়া যাবে। 

আরও পড়ুনঃ ফেইসবুকে আরও নিরাপদ থাকার ৫ টিপস

বন্ধু নির্বাচনে সতর্কতা ও অযাচিত লিংক এড়িয়ে চলা 

সোশ্যাল মিডিয়ায় বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক থাকতে হবে। অপরিচিত কাউকে বন্ধু হিসেবে যোগ করা হতে বিরত থাকতে হবে। এছাড়া অপরিচিত কোনো মাধ্যম থেকে আসা কোনো লিংক কিংবা চটকদার কোনো বিজ্ঞাপন এড়িয়ে চলতে হবে। 

থার্ড পার্টি অ্যাপ বা সেবা হতে সাবধানতা 

সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের থার্ড পার্টি সেবাপ্রদানকারী অ্যাপ বা সার্ভিস রয়েছে, যেগুলোর মধ্যে অ্যাকাউন্টের সংবেদনশীল তথ্য চুরির আশঙ্কা সবচেয়ে বেশি। তাই এই ধরনের থার্ড পার্টি অ্যাপ হতে বিরত থাকতে হবে। 

থার্ড পার্টি অ্যাপগুলো ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি করে কী করে তা জানা যাবে টেকশহরডটকমের এই প্রতিবেদনে। 

কনটেন্ট শেয়ারিংয়ে সাবধানতা 

সোশ্যাল মিডিয়ার আমরা ছবি, ভিডিও, লেখাসহ নানান ধরনের কনটেন্ট শেয়ার করে থাকি। এক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে- 

  • ব্যক্তিগত সংবেদনশীল ছবি কিংবা ভিডিও আপলোড না করা ভালো। 
  • এডাল্ট কোনো কনটেন্ট আপলোড, শেয়ার কিংবা ইনবক্সে প্রেরণ করা হতে বিরত থাকতে হবে।
  • অন্যকে হেয় করে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না। 
  • আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকতে হবে। 

অনলাইনে হ্যাকিং কিংবা কোনো ধরনের বিপদের সম্মুক্ষীণ হলে জাতীয় ইমারেজেন্সি সেবা ‘৯৯৯’ কল করে সেবা গ্রহণ করা যাবে। 

আরও পড়ুনঃ 

নারীদের ফেইসবুকে নিরাপদ থাকার উপায়

আরএ/ ইএইচ/ অক্টোবর ০৭/ ২০১৯ /১৯০৪ 

১ টি মতামত

  1. Timon Dey said:

    বর্তমান সময়ে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যগুলো আমাদের জন্য হুমকি স্বরূপ কাজ করে।তাই নিরাপত্তা অত্যন্ত জরুরি।ধন্যবাদ বিষয়টি শেয়ার করার জন্য

*

*

আরও পড়ুন