ভিন্ন মডেলে জোবাইক এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : এবার অ্যাপ ভিত্তিক বাইসাইকেল শেয়ারিং সেবা জোবাইক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের কার্যক্রম শুরু করছে।

আগামী ৭ অক্টোবর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে জোবাইকের সেবা নিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। তবে সপ্তাহখানের পরীক্ষামূলক সেবা দেবার পরই এর আনুষ্ঠানিকতায় যাবে প্রতিষ্ঠানটি। 

জাহাঙ্গীরনগর, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই রাইড শেয়ারিং সেবা দিতে যাচ্ছে জোবাইক। 

জোবাইকের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান মেহেদী রেজা টেকশহরডটকমকে বলেন, আমরা কিছুটা ভিন্ন আঙ্গিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সেবাটি শুরু করতে যাচ্ছি।

নতুন আঙ্গিক বলতে তিনি বোঝান, এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান শিক্ষার্থী নন এমন কেউ সেবাটি ব্যবহার করতে পারবেন না। সেবাটির নিবন্ধনও করতে হবে বর্তমান পরিচয়পত্র দিয়েই।

শিক্ষার্থী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারী ব্যতিত কেউ জোবাইক ব্যবহার করতে পারবেন না এখানে। এমনকি অন্য কোথাও নিবন্ধন থাকলেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সেটি ব্যবহার করতে পারবেন না।

তিনি বলেন, অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানা একটা নির্দিষ্ট জায়গায় নেই। এটা কিছুটা ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। ফলে আমাদের সেই দিকটি মাথায় রেখেই এর পরিকল্পনা সাজাতে হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে জোবাইক নতুন একটা প্রাইসিং আনার কথাও ভাবছে। যা অন্তত তিন মাস পরীক্ষামূলক চালাবে জোবাইক।

মেহেদি রেজা বলেন, অন্য এলাকার সেবার চেয়ে এখানকার প্রাইসিং কিছুটা কম রাখার চিন্তা রয়েছে। সেখান থেকে আমাদের ব্যবসায়িক এবং শিক্ষার্থীদের কতটা সুবিধা হবে সেটা নির্ধারণের পরই চূড়ান্ত করা হবে এর মূল্য।

ছেলে মেয়ে উভয়ের ব্যবহার উপযোগী হিসেবে তৈরি জোবাইকের স্মার্ট এই সাইকেলের সঙ্গে আছে অত্যাধুনিক লক, সোলার প্যানেল, জিপিএস ইত্যাদি। এই সাইকেলের লক খোলার জন্য দরকার হবে একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ। অ্যাপ ডাউনলোড করে, অ্যাকাউন্ট খুলে, সাইকেলের সঙ্গে থাকা কিউআর কোড স্ক্যান করে সাইকেলটি ব্যবহার করা যাবে।

অ্যাপের মাধ্যমে সাইকেলের লক খোলার সঙ্গে শুরু হবে সময় গণনা। গন্তব্যে পৌঁছে ব্যবহারকারী যখন সাইকেলটি স্ট্যান্ড করে পুনরায় লক করবেন তখন শেষ হবে তার রাইড।

রাইডের মূল্য পরিশোধ করতে সাইকেল স্ট্যান্ডের কাছে একটি রিচার্জ সেন্টার থাকবে। যেখান থেকে ব্যবহারকারীরা জোবাইকের অ্যাপে রিচার্জ করতে পারবেন। আর সেই অ্যাকাউন্ট থেকেই রাইডের ভাড়া পরিশোধ করতে পারবেন। অল্প সময়ের মধ্যে এই ভাড়া পরিশোধে বিকাশ ও অন্যান্য পেমেন্ট সিস্টেমও অ্যাপে জুড়ে দেবে বলে জানিয়েছে জোবাইক।

দেশে ২০১৮ সালের মাঝামাঝিতে সাইকেল রাইড সেবা শুরু করে স্টার্টআপ জোবাইক। কক্সবাজার এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে শুরু হলেও এই সেবা এখন দেশের বশ কয়েকটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু রয়েছে। এছাড়াও ঢাকার মিরপুর ডিওএইচএসে সেবাটি এখন চালু আছে।

ইএইচ/ অক্টো০৪/ ২০১৯/ ১৬০০

*

*

আরও পড়ুন